বিদেশি টুকরো

কলেজ জীবনে প্রেমিকাকে লেখা ওবামার প্রেমপত্র প্রকাশ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: প্রকাশ্যে এসেছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রেমপত্র। ১৯৮২ সাল থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত তিনি ৯টি চিঠি লিখেছিলেন তার সাবেক প্রেমিকা আলেক্সান্দ্রা ম্যাকনিয়ার কাছে। চিঠিগুলো যখন লিখেছিলেন তখন কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি, ইন্দোনেশিয়া এবং সর্বশেষ বিজনেস ইন্টারন্যাশনাল করপোরেশনে ছিলেন ওবামা। চিঠিতে তিনি রাজনীতিতে আসার আগে মানসিক দোলাচলে ভুগছিলেন বলে জানা যায়। রাজনীতির হাতেখড়ি হওয়ার সময় কেমন মানসিক অবস্থা ছিলো সেইসব ধরা পড়েছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের এসব চিঠিতে। ৩০ পৃষ্ঠার চিঠি থেকে জানা যায়, পৃথিবীতে নিজের ভূমিকা, জাতিগত পরিচয়, নিজ সম্প্রদায়ের মানুষের আর্থিক উন্নতি হবে কিনা এবং প্রেমিকার সাথে তার বিভিন্ন বিষয়ে মতবিরোধ ছিলো যা নিয়ে ওবামা চিন্তিত ছিলেন। ২০১৪ সালেই চিঠিগুলো হাতে পায় আটলান্টার ইমরি বিশ্ববিদ্যালয়। চিঠির অংশ বিশেষ প্রকাশিত হয়েছে ওবামাকে নিয়ে লেখা একটি বইয়ে। তবে এই প্রথম সব চিঠি প্রকাশ্যে আনা হলো। গবেষকরা এই চিঠি দেখতে পারবেন। ১৯৮৪ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার শিক্ষা জীবন শেষ করে কলম্বিয়া চলে যান ওবামা। ইমরি ইউনিভার্সিটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, চিঠিতে ১৯৮০ সালেই ওবামার মধ্যে হোয়াইট হাউসে যাওয়ার একটা চিন্তার কথা জানা যায়।

বাবরি মসজিদের মতোই ধ্বংস হওয়ার পথে তাজমহল

মাথাভাঙ্গা মনিটর: তাজমহলও কি বাবরি মসজিদের পরিণতি ভোগ করতে যাচ্ছে? এ বিতর্ক বেশ জোরেসোরেই শুরু হয়েছে ভারতজুড়ে। এতে নতুন মাত্রা যোগ করেছেন দেশটির সমাজবাদী পার্টির (সপা) নেতা আজম খান। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন, বাবরি মসজিদের মতো ধ্বংস হতে পারে তাজমহলও। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক সঙ্গীত সোম মন্তব্য করেছেন, ‘তাজমহল ভারতীয় সংস্কৃতিতে কলঙ্কের চিহ্ন।’ একই সাথে তাজমহলের নাম বদলে ‘তেজো মহল’ করার দাবি তুলেছেন বিজেপি সংসদ সদস্য বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা বিনয় কাটিয়ার। তার দাবি, মন্দির ভেঙেই তাজমহল বানানো হয়েছে। বুধবার আর এক বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী আবার দাবি করেন, যে জমিতে তাজমহল দাঁড়িয়ে আছে সেই জমিটি জয়পুরের রাজাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছিলেন মুঘল সম্রাট শাহজাহান। তার কথায়, ‘আমার হাতে এমন নথি এসেছে, যা থেকে স্পষ্ট যে জয়পুরের রাজা মহারাজাদের তাজমহলের জমিটি বেচতে বাধ্য করেছিলেন শাহজাহান। ক্ষতিপূরণ বাবদ সেই রাজাদের ৪০টি গ্রাম দেয়া হয়েছিলো। যাকে কোনোভাবেই ওই জমির দামের সঙ্গে তুলনা করা যায় না।’

তামিলনাড়ুতে বাস ডিপো ধসে নিহত

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিলনাড়ুতে বাস ডিপো ধসে ৮ পরিবহন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে রাষ্ট্রীয় ট্রান্সপোর্ট করপোরেশনের (টিএনএসটিসি) নাগাপত্তিনাম জেলার পোরায়ার অফিসটি ধসে পড়ে। এতে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। ১৯৫২ সালে নির্মিত দ্বিতল অফিসটিতে রাতে শ্রমিকরা ঘুমিয়ে ছিলেন। হঠাত ভবন ধসে পড়লে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। নাগাপত্তিনাম ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর ড. সি সুরেশ কুমার ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ভবন ধসের কারণ অনুসন্ধানে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

মিয়ানমারে পাথর সংগ্রহকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষে নিহত

মাথাভাঙ্গা মনিটর: মিয়ানমারে উত্তরাঞ্চলে খনি বর্জ্য থেকে রত্নপাথর সংগ্রহকারীদের সাথে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত ও ২৫ জন আহত হয়েছে। এসব সংগ্রহকারীদের মূল্যবান পাথরের একটি খনিতে প্রবেশে পুলিশ বাঁধা দিলে এ সংঘর্ষ হয়। মাল্টি বিলিয়ন ডলারের এ শিল্পখাতে এটি সর্বশেষ সংঘর্ষের ঘটনা। শুক্রবার রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম একথা জানায়। মিয়ানমারের কচিন রাজ্যের হপাকান্তে ‘১১১ কোম্পানি’ মালিকানাধীন একটি শিল্প প্লটে প্রবেশে প্রায় ৫০ জন সংগ্রহকারীকে পুলিশ বাঁধা দিলে এ সংঘর্ষ শুরু হয়। রাষ্ট্র পরিচালিত গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমার জানায়, সংঘর্ষ শুরু হওয়ার এক ঘণ্টা পর প্রায় ৬শ’ লোক এসে পুলিশের ওপর হামলা চালায় এবং তাদের যানবাহনে আগুন ধরিয়ে দেয়।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *