বিদেশি টুকরো

রাশিয়ার শপিংমল অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৪

রাশিয়ার সাইবেরিয়ার কয়লা উত্তোলনকারী নগরী কেমেরোভোর একটি শপিংমলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নারী, শিশুসহ অন্তত ৬৪ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত আরও ১০ ব্যক্তি নিখোঁজ থাকার কথা জানিয়েছেন দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী  ভ্লাদিমির পুচকভ। ধারণা করা হচ্ছে, হতাহত ও নিখোঁজদের মধ্যে ৪১ জন শিশুও রয়েছে। মস্কো থেকে প্রায় ৩ হাজার ৬শ’ কিলোমিটার দূরের শহর কেমেরোভোর উইন্টার চেরি কমপ্লেক্স নামের শপিং সেন্টারটিতে আগুন লাগে গত রোববার সন্ধ্যায়। ধারণা করা হচ্ছে, একেবারে উপরের তলায় আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ওই শপিং সেন্টারের উপরের তলায়মূলত সিনেমা হলসহ বিনোদন কেন্দ্র রয়েছে। বিবিসি জানাচ্ছে, অগ্নিকাণ্ডের শিকার ভবনটির কিছু অংশ ধসে পড়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। নিখোঁজদের খোঁজে ভবনটিতে অভিযান চালাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা। কেমেরোভোর আঞ্চলিক জরুরি ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ-প্রধান জানিয়েছেন, শপিংমলটি ১৫শ’ বর্গফুট জায়গাজুড়ে আগুন ছড়িয়ে পড়েছিলো। ৫ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হয় দমকল বাহিনী।

 

এবার ৬০ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করলো যুক্তরাষ্ট্র

সাবেক রুশ এজেন্টকে বিষ প্রয়োগে হত্যার চেষ্টার প্রতিক্রিয়ায় এবার সেদেশের ৬০ কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে- ওয়াশিংটন ও নিউইয়র্ক থেকে ৬০ জন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এর আগে, জার্মানিও ঘোষণা করেছে যে তারা ৪ জন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করছে। তিন সপ্তাহ আগে ব্রিটেনে একজন সাবেক রুশ ডাবল এজেন্ট সের্গেই স্ক্রিপাল এবং তার মেয়ের ওপর মারাত্মক বিষাক্ত রাসায়নিক নার্ভ এজেন্ট গ্যাস দিয়ে যে আক্রমণ হয়, তার প্রতিক্রিয়াতেই পশ্চিমা দেশগুলোর পক্ষ থেকে সমন্বিতভাবে এসব ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কূটনীতিকদের বহিষ্কারের পাশাপাশি সিয়াটলে অবস্থিত রুশ কনস্যুলেট বন্ধেরও নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বহিষ্কৃত ৬০ জন কূটনীতিকের মধ্যে ৪৮ জন রাশিয়া দূতাবাস এবং বাকি ১২ জন নিউইয়র্কে জাতিসংঘে কর্মরত আছেন। তাদের এক সপ্তাহ’র মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ছেড়ে যেতে বলা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *