বিদেশি টুকরো

মোদির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে তথ্য পাচারের অভিযোগ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ফেসবুক কাণ্ডের পর এবার অভিযোগের তীর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দিকে। নরেন্দ্র মোদির নামে যে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপটি (নরেন্দ্র মোদি অ্যাপ) চালু রয়েছে তা ইউজারদের ব্যক্তিগত গোপনীয় তথ্য পাচার করে দিচ্ছে একটি বিদেশি সংস্থাকে। নরেন্দ্র মোদির নিজস্ব ওই ওয়েবসাইটটির ঠিকানা হচ্ছে, ‘নরেন্দ্র মোদি ডট ইন’। যার মালিক নরেন্দ্র মোদি নিজে। আর ঠিকানা দেয়া হয়েছে নয়াদিল্লির আকবর রোডের বিজেপি সদর দফতর।

ফরাসি ইন্টারনেট নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ এলিয়ট অ্যাল্ডারসনের অভিযোগ, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ওই অ্যাপটি যারা ব্যবহার করছেন তাদের অজান্তেই ব্যক্তিগত গোপনীয় তথ্য ‘ক্লেভার ট্যাপ’ নামে একটি মার্কিন সংস্থার কাছে পাচার করে দেয়া হচ্ছে। একের পর এক টুইটে অ্যাল্ডারসনের অভিযোগ, প্রথমবার ওই অ্যাপে লগইন করে নতুন প্রোফাইল তৈরি করার সময়েই ফাঁদে পা দিচ্ছেন ইউজাররা। প্রোফাইল ক্রিয়েট করার সময়েই ইউজাররা যে ডিভাইস (মোবাইলফোন বা ট্যাব) ব্যবহার করছেন, সে সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য, ইউজারদের ব্যক্তিগত গোপনীয় তথ্যাদি একটি বিদেশি সংস্থার ডোমেইন ‘ইন.ডব্লিউজেডআরকেটি ডট কম’ (in.wzrkt.com) এ পাচার করে দেয়া হচ্ছে। ওই ডোমেইনটি মার্কিন সংস্থা ‘ক্লেভার ট্যাপ’র।

শারীরিক সম্পর্কের জন্য ট্রাম্প অর্থ দিতে চাইলেও নেইনি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: সাবেক মার্কিন প্লেবয় মডেল কারেন ম্যাকডুগাল জানিয়েছেন, বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে তার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছিলো। এরপর ডোনাল্ড ট্রাম্প তাকে অর্থ দিতে চাইলেও তিনি গ্রহণ করেননি। গত বৃহস্পতিবার প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে ম্যাকডুগাল এই তথ্য জানান।  এক বিশেষ সাক্ষাত্কারে ম্যাকডুগাল বলেন, ট্রাম্প এবং আমি কয়েকবার শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হই। কিন্তু প্রথমবার মিলিত হওয়ার পরই ট্রাম্প আমাকে টাকা দিতে চান। তখন আমি তাকে বলি, আমি সেই ধরনের মেয়ে নই। তখন ট্রাম্প বলেন, ‘ও তুমি তাহলে তো বিশেষ কিছু’। এরপরও আমরা শারীরিক সম্পর্ক করি বিভিন্ন স্থানে। ম্যাকডুগাল ট্রাম্পের সঙ্গে এই সম্পর্কের জন্য ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

ফের আমরণ অনশনে আন্না হাজারে

মাথাভাঙ্গা মনিটর: লোকপালের দাবিতে ৭ বছর পর ফের আমরণ অনশন শুরু করেছেন ভারতের গান্ধীবাদী নেতা আন্না হাজারে। এছাড়া দেশটির কৃষকদের সমস্যা মেটানোর জন্য স্বামীনাথন কমিটির সুপারিশ কার্যকর করার দাবিও রয়েছে আন্নার এবারের অনশনের কর্মসূচিতে। এর আগে, দুর্নীতি দমনে লোকপাল গঠনের দাবিতে ২০১১ সালে দিল্লীর রামলীলা ময়দানেই আমরণ অনশনে বসেছিলেন তিনি। সে সময় কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে লোকপাল গঠনের প্রতিশ্রুতি পেয়ে সেই অনশন তুলে নিয়েছিলেন আন্না। পরবর্তীতে আন্নাকে নিজেদের দলে ভেড়ানোর অনেক চেষ্টা করে ভারতীয় কংগ্রেস ও বিজেপি। কিন্তু বর্ষীয়ান গান্ধীবাদী নেতা আন্না কোনো রাজনীতির সঙ্গেই নিজেকে জুড়তে চাননি। আন্নার সেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন থেকেই জন্ম হয়েছিলো ‘আম আদমি পার্টি’র। গত শুক্রবার রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা জানান তিনি। তারপরই রামলীলা ময়দানে আমরণ অনশন শুরু করেন আন্না হাজারে।

পশুখাদ্য কেলেঙ্কারি মামলায় ফের ১৪ বছরের জেল লালুর

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতে পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির চতুর্থ মামলায় আরজেডি প্রধান লালুপ্রসাদ যাদবকে গতকাল শনিবার ৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে রাঁচির বিশেষ সিবিআই আদালত। বিচারক শিবপাল সিংহ দুমকা ট্রেজারি মামলায় ৭ বছর এবং দুর্নীতি দমন আইনে আলাদাভাবে ৭ বছর কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন লালুকে। তবে, ২ দিন আগে অসুস্থ লালুপ্রসাদ রাঁচির রাজেন্দ্র ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস (রিমস) এ ভর্তি হয়েছেন। তাই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মামলার এই শুনানি হয়। লালু আদালতে উপস্থিত না থাকলেও বাকি ১৮ জন অভিযুক্ত হাজির ছিলেন সেখানে। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে তার বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকার পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির অভিযোগ ওঠে। এ কেলেঙ্কারির তিনটি মামলাতে আগেই দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন লালু। গত বছরের ডিসেম্বর থেকে তিনি বীরসা মুণ্ডা জেলে রয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *