বিদেশি টুকরো খবর

পাপুয়া নিউ গিনিতে ছাত্র বিক্ষোভে পুলিশের গুলি : নিহত ৪

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাপুয়া নিউ গিনির (পিএনজি) রাজধানী পোর্ট মোরেসবিতে পার্লামেন্টমুখি ছাত্রদের একটি বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের গুলিতে অন্ততপক্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। বুধবারের এ ঘটনায় আরো প্রায় ২০ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে হাসপাতাল সূত্রগুলো। পুলিশের গুলিবর্ষণের পর শহরজুড়ে দাঙ্গা, লুটপাট ও গুলিবর্ষণ ঘটনা ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তা ও স্থানীয় বাসিন্দারা। অস্ট্রেলিয়ার উত্তরের এই দ্বীপরাষ্ট্রটিতে সরকারের দুর্নীতি নিয়ে গভীর রাজনৈতিক অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ছে। দুর্নীতির অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী পিটার ও’নেইলের পদত্যাগের দাবিতে গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। পোর্ট মোরেসবির ওয়াইগানি ক্যাম্পাসে প্রতিবাদরত ছাত্র ও জনতাকে লক্ষ্য করে পুলিশ গুলিবর্ষণ ও কাঁদুনে গ্যাস নিক্ষেপ করেছে বলে স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন। আহত ছাত্রদের একটি দলকে হাসপাতালে নেওয়ার পর হাসপাতালের এক কর্মকর্তা বলেন, পোর্ট মোরেসবি জেনারেল হাসপাতালের বাইরে জনতার সাথে পুলিশের বিরাট মারামারি চলছে। গোলাগুলিও চলছে, প্রকাশ্যে গুলিবর্ষণ করা হচ্ছে।

 

মিশিগানে লরির আঘাতে ৫ সাইকেল আরোহীর মৃত্যু

মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যে এক দুর্ঘটনায় পাঁচ সাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো চারজন। কালামাজো শহরের পুলিশ জানিয়েছে, মাত্র মিনিট খানেক সময় আগেই লরিটি অস্বাভাবিকভাবে চালানো হচ্ছে বলে দেখা যায়। আর এরপরই লরিটি সাইকেল আরোহীদের আঘাত করে। লরিটির চালক ৫০ বছর বয়সী মিশিগানের অধিবাসী। দুর্ঘটনার পরই তিনি সেখান থেকে পালিয়ে যান। কিন্তু কিছু সময় পরই তাকে কাছাকাছি স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়। হাসপাতালের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। মার্কুস এবারহার্ড নামের একজন প্রত্যক্ষদর্শী কালামাজোর উড চ্যানেলকে বলেন, ট্রাকটি প্রায় তার পা মাড়িয়ে দিয়ে সামনের সাইকেল আরোহীদের দিকে এগিয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, আমি দেখলাম কতোগুলো বাইসাইকেল ট্রাকটির সামনে আছড়ে পড়েছে এবং সেগুলোর কয়েকটি ছিটকে গেছে।

ব্রাজিলে চলতি বছর সোয়াইন ফ্লুতে ৭৬৪ জনের মৃত্যু

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ব্রাজিলে চলতি বছরে সোয়াইন ফ্লু নামে পরিচিত এইচ১এন১ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ৭৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানিয়েছে। ব্রাজিলে ২০১৫ সালে সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছিলো। অথচ চলতি বছরে শুধুমাত্র গত সপ্তায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৮৫ জন মারা যান। চলতি বছরে ব্রাজিলে শ্বাসতন্ত্রের গুরুতর সংক্রমণের শিকার ৩ হাজার ৯৭৮ জন রোগীর নাম নিবন্ধন করা হয়েছে। গত বছর এই সংখ্যা ছিলো মাত্র ১৪১। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত সপ্তায় শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমণের শিকার ৪৬০ জনের নাম নিবন্ধন করা হয়েছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া রোধে সরকার টিকাদান কর্মসূচি চালু করেছে। ৫ কোটি মানুষকে এই টিকা দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটির সরকার। বিশেষ করে গর্ভবতী নারী, শিশু ও বৃদ্ধদের ব্যাপারে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বেশি। প্রসঙ্গত, জ্বর, নাক দিয়ে সর্দি ঝরা, গলা ব্যথা ও কাশির সাথে শ্বাসকষ্ট সোয়াইন ফ্লুর অন্যতম উপসর্গ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *