বিচার চেয়ে কাঁদলেন বিশ্বজিতের বাবা

 

স্টাফ রিপোর্টার: সাক্ষ্য দিয়ে কাঁদলেন ছাত্রলীগ ক্যাডারদের হামলায় নিহত বিশ্বজিৎ দাশের বাবা অনন্ত চন্দ্র দাস। গতকাল রোববার ঢাকার চার নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এবিএম নিজামুল হকের আদালতে দেয়া সাক্ষ্যে তিনি বলেছেন, বিশ্বজিত তার ছোট ছেলে। বাবা বেঁচে থাকতে ছেলের লাশ দেখা যে কতো যন্ত্রণার তা বোঝানো যাবে না। এরপর কাঁঠগড়ায় দাড়ানো আসামিদের বিচার চেয়ে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। আদালতের পিপি এসএম রফিকুল ইসলাম জানান, মামলাটিতে এ নিয়ে ৩০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য শেষ হলো। সাক্ষ্য নেয়ার সময় কারাগারে থাকা আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। গত ৯ ডিসেম্বর অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে পুরান ঢাকার ভিক্টোরিয়া পার্কের সামনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ক্যাডারদের হাতে নির্মমভাবে নিহত হন নিরীহ দর্জি বিশ্বজিৎ দাস।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *