বিকাশের সুযোগ না দিলে প্রতিভাবান তৈরি হবে না

গাংনীতে পল্লী কবিখ্যাত ছহির উদ্দীনের উপন্যাসের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এমপি মকবুল

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন বলেছেন, দারিদ্রতা মোকাবেলা করে যার পথচলা। লেখার জন্য কাগজ-কলম কেনা যার কাছে বাহুল্য। আর্থিক স্বচ্ছলতার কথা চিন্তা করেননি। আজীবন তিনি লিখে গেছেন পল্লী জীবনের সুখ-দুঃখ। কিন্তু আমরা তার প্রতিভার মূল্যায়ন করতে পারিনি। প্রতিভা বিকাশের সুযোগ না দিলে প্রতিভাবান মানুষ তৈরি হবে না। সমাজের জন্য এমন নিবেদিত প্রাণ মানুষগুলোকে যথাযথ মূল্যায়নে সকলের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
গতকাল রোববার দুপুরে গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজ হলরুমে পল্লী কবি ছহির উদ্দীনের দ্বিতীয় উপন্যাস ‘তুমি যে আমার গলার মালা’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি ওই আহ্বান জানান। গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজ আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ খোরশেদ আলী।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মকবুল হোসেন এমপি আরও বলেন, অজোপাড়াগায়ে জন্ম নিয়েও তিনি কবিতা সাধনা করেছেন। শিক্ষাদীক্ষায় তেমন এগিয়ে যেতে পারেননি। তবে লেখনির মধ্য দিয়ে তিনি প্রমাণ করেছেন প্রতিভা থাকলে আটকানো যায় না। তিনি জীবনের শেষ সময়ে এসে হলেও মহিলা কলেজ তার সম্মানে আজকে যে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে তার ভূয়সী প্রশংসা করেন এমপি।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন গাংনী থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী হাজি আলফাজ উদ্দীন, বিশিষ্ট সংগঠক সিরাজুল ইসলাম, নারীনেত্রী নুরজাহান বেগম, সুজন সভাপতি আব্দুর রশিদ, শহীদ স্মৃতি পাঠাগারের সহ-সভাপতি ইয়াছিন রেজা, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শফি কামাল পলাশ, সন্ধানী সংস্থার নির্বাহী পরিচালক আবু জাফর ও গাংনী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পারভেজ সাজ্জাদ রাজা, গাংনী প্রেসক্লাব সভাপতি রমজান আলী ও সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ-উদ্দ-দৌলা রেজা।
অনুষ্ঠানের আয়োজকদের দাবির প্রেক্ষিতে কবিকে মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন ৫০ হাজার, হাজি আলফাজ উদ্দীন ৫ হাজার ও আজিজুল হক রানু ২ হাজার টাকা প্রদান করেন।
প্রসঙ্গত, গাংনী উপজেলার নিভৃত পল্লী মাইলমারী গ্রামের বাসিন্দা ছহির উদ্দীন। ছোটবেলায় থেকেই তিনি কবিতা লেখেন। তার অসংখ্য কবিতা গ্রামের মানুষের মুখে মুখে। কিন্তু অর্থাভাবে বই আকারে প্রকাশ করতে পারেননি। সমাজের সহৃদয়বান কিছু মানুষের সহায়তায় তিনি গেলো বছর প্রথম উপন্যাস বের করলে ব্যাপক সাড়া পড়ে। এবার গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ খোরশেদ আলীর সহায়তায় দ্বিতীয় উপন্যাস বের হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *