বর্ণাঢ্য আয়োজনে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুরসহ সারাদেশে কেক কেটে মিষ্টিমুখ ও আলোচনাসভা

স্টাফ রিপোর্টার: নানা আয়োজনে দেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী সংগঠন ছাত্রলীগের ৬৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল শনিবার বর্ণাঢ্য কর্মসূচি পালন করেছে সংগঠনটি। চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ, কলেজ ছাত্রলীগ, দর্শনা সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগ ও মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগ বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করে। পালিত কর্মসূচির মধ্যে ছিলো দলীয় পতাকা উত্তোলন, কেক কেটে বিতরণ, মিষ্টিমুখ, আলোচনাসভা। শোভযাত্রার বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হলেও নিবার্চনের পূর্ব দিনে সভা সমাবেশ মিছিল করা বারণের কারণে তা করা হয়নি।

১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জন্ম নেয় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। শুক্রবার রাত ১২টা এক মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি শুরু করে ছাত্রলীগ। এ উপলক্ষে কার্জন হলে আলোকসজ্জা করা হয়। অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয়, বিশ্ববিদ্যালয়সহ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। গতকাল সকাল ৭টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল সাড়ে ৮টায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরস্থ প্রতিকৃতিতে ছাত্রলীগের সভাপতি এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমের নেতৃত্বে সংগঠনের নেতাকর্মীরা শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মেহেদী হাসান, সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফ।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, সংগ্রাম ইতিহাস ঐতিহ্যের ৬৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করে। কেদারগঞ্জ বাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির কার্যালয়ে সকাল ৭টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতির্কীতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। বেলা ১১টার সময় ৬৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা ও সাধারণ ছাত্রছাত্রী এবং পাড়া মহল্লায় মিষ্টি বিতরণ করে সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফ হোসেন দুদুর সভাপতিত্বে আলোচনাসভা শুরু হয়। বক্তব্য রাখেন- জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি অ্যাড. ফিরোজ, সাবেক দপ্তর সম্পাদক মতি, সদর থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাফিজুর রহমান লাল্টু, সাবেক কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিপ্লব, সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান কালু, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি শরিফ উদ্দিন, মেহেদী, যুগ্মসম্পাদক ফরিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ফরিদ আহমেদ, রাশেদ, সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক সুমন রেজা, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি জাবিদ, সাধারণ সম্পাদক নাইম পারভেজ সজল, কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জানিফ প্রমুখ। আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন- জেলা ছাত্রলীগের শান্তি, সজল, রাজা, বেজিও, শিহাব, মধু, আজগর, খালেক, সদর থানা ছাত্রলীগ নেতা হালিম, ইমরান, হাসান, জজ, জাহাঙ্গীর, মাফি, তাপু, রুবেল, তাওরাত, রাকিব, হাসিবুল, জ্যাকি, বিপ্লব, জনি, ডেবিড, ভূলন, বুলবুল, বাবু, আলামিন প্রমুখ।

আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বাংলাদেশে যতোগুলো ইতিহাস রচিত হয়েছে ছাত্রলীগের সর্বক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা ছিলো। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে সর্বোপরি মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাঁচিয়ে রাখতে এবং সুখী সমৃদ্ধ, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে আবারও শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীদের নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জেলা ছাত্রলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক রিংকু জোয়ার্দ্দার।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আয়োজনে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৬টায় দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে সকাল ১০টায় জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে দলীয় কার্যালয়ে কেক কেটে আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি রুবাইত বিন আজাদ সুস্তির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক ছাত্রনেতা চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন। উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের নেতা নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম আসমান, সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি মুন্না, যুগ্মসম্পাদক শফিউদ্দীন টিটু, শাহাবুল, ইমরান, প্রচার সম্পাদক রহমান, স্কুলছাত্র বিষয়ক সম্পাদক রাজু, পাঠাগার সম্পাদক আক্তার, গ্রন্থনা সম্পাদক হিমেল, গবেষণা সম্পাদক মিল্টন, সহসম্পাদক ফয়সাল, অর্থসম্পাদক রিমন, আনোয়ার, জেলা ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা পাভেল ও রাজীব, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি স্বপন, সাধারণ সম্পাদক তারেক, সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা, সাবেক সম্পাদক মানিক, চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকরা, যুগ্মসম্পাদক মনি, ইসরাফিল, ছাত্রলীগ নেতা খালিদ, বিত্ত, রুবেল, শামীম, আকিদুল, ফিরোজ, জীম, খাইরুল, নন্দ, আরেফিন, রানা, রাশেদ, রাসেল, উবাইদুল, বাপ্পি, চঞ্চল, সোহেল, টিটন, লিপু, টোকন, সৌরভ, সম্রাট, রোমেল, ছোট, প্রান্ত, সুইট, যুবলীগ নেতা মাসুম, জুয়েল বিপুল, শরীফসহ নেতৃবৃন্দ। পরিচালনা করেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক। পরে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক ও যুবলীগ নেতা নঈম হাসান জোয়ার্দ্দারের নেতৃত্বে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করা হয়।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, দুপুর একটার দিকে জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শহরের হোটেল বাজারে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের উপস্থিত ছিলেন- জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মফিজুর রহমান মফিজ, বর্তমান সভাপতি সাফুয়ান আহম্মেদ রূপক, সাধারণ সম্পাদক বারিকুল ইসলাম লিজন, শহর ছাত্রলীগের সভাপতি মাহফিজুর রহমান পোলেন, সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস শোভন, সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি জুনায়েদ ইমতিয়াজ জুলফিক্বার, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম আনন্দ, সাংগাঠনিক সম্পাদক মো. রিংকু, সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ, সাধারণ সম্পাদক কুদরত-ই খোদা রুবেল, ছাত্রলীগ নেতা বকুল, রুমেলসহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।

দর্শনা অফিস জানিয়েছে, দুপুর একটার দিকে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগরের পুরাতন বাজারস্থ বাসভবনে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। কেক কাটেন এমপি আলী আজগার টগর। উপস্থিত ছিলেন- জেলা আ.লীগের স্বাস্থ্য ও জনকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাজি সহিদুল ইসলাম, দামুড়হুদা উপজেলা আ.লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, যুগ্মসম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান জাকারিয়া আলম, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জামিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাজু আহম্মেদ রিংকু, ছাত্রলীগ নেতা মিঠু বিশ্বাস, শাহিন মোল্লা, হাতেম আলী, আকরামুল, মাসুম, রকিব, আরিফ মল্লিক, রুবেল, মিলন, মুসা করিম, সামাদ, করিম প্রমুখ।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, জীবননগর উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠাবর্ষিকী পালন করা হয়। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, কেক কাটা ও আলোচনসভার আয়োজন করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তুজা প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। বিকেলে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জীবননগর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সোয়েব আহমেদ অঞ্জনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম মানিক, ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান, সাধারণ সম্পাদক রুবেল রানা প্রমুখ। উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম রাজার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগ নেতা শাওন, অজয়, ইমরান, অভি, তুষার, রফিকুল ইসলাম, সুবজ, রমেন, আশিক, শামীম প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *