ফেনসিডিল পাচারের দায়ে আকন্দবাড়িয়ার ফাতেমার জেল-জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার: ফেনসিডিল পাচারের দায়ে চুয়াডাঙ্গা দর্শনা আকন্দবাড়িয়ার ফাতেমা বেগমের ২ বছরের কারাদণ্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। চুয়াডাঙ্গার স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৫’র বিজ্ঞ বিচারক মোহাম্মদ আব্দুর রহিম গতকাল রোববার জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় প্রদান করেন।

জানা গেছে, ২০০৮ সালের ১০ এপ্রিল চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের বেগমপুর ইউনিয়নের আকন্দবাড়িয়া গ্রামের ইছাহাক আলী ওরফে শুকুর আলীর স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৩৫) রেল পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনযোগে ১৪ বোতল ফেনসিডিল পাচারের সময় হাতেনাতে তাকে ধরা হয়। পোড়াদহ জিআরপি থানায় মামলা রুজু করা হয়। চুয়াডাঙ্গার স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৫ এ বিচার শুরু হয়। মামলার ৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ ও পরীক্ষা করে আসামির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ২ বছরের কারাদণ্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। জামিনে মুক্তির পর ফাতেমা পলাতক। ফলে তার অনুপস্থিতিতে রায় প্রদান করা হয়েছে। গ্রেফতার বা আত্মসমর্পণের দিন থেকে তার সাজার মেয়াদ শুরু হবে বলে বিজ্ঞ বিচারক প্রদত্ত রায়ে উল্লেখ করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *