ফলোআপ: চুয়াডাঙ্গার তেঘরিতে অপহরণ করে তুলে নিয়ে মারপিটের ঘটনায় সাবেক মেম্বারের বিরুদ্ধে মামলা

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার তেঘরি গ্রামে জাহাঙ্গীর নামের একজনকে হাত-মুখ বেঁধে তুলে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারপিট করার ঘটনায় গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য নুরু মেম্বারের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা করা হয়ছে। মামলা করায় নুরু ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা বাদী আলমগীরকে বিভিন্নভাবে হুমকিধামকি দিচ্ছে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, গত রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউনিয়নের তেঘরি স্কুলপাড়ার হাশেমের ছেলে জাহাঙ্গীর বাজার থেকে বাড়ির ফিরছিলেন। এ সময় জাহাঙ্গীর বাড়ির নিকটবর্তী ছোট ব্রিজের নিক পৌঁছুলে ৭/৮ জন তার হাত-মুখ বেঁধে কুড়ের মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে লোহার রড় এবং রামদার উল্টাপিট দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে অপহরণকারীরা। একপর্যায় অপহরণকারীরা বিভিন্ন সলাপরামর্শ করার জন্য একটু দূরে গেলে জাহাঙ্গীর কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে যান। বাড়ির লোকজন খবর পেয়ে তাকে মাঠ থেকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে পরের দিন সোমবার সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। গতকাল তার জ্ঞান ফিরে এলে তিনি অপহরণের ঘটনার বর্ণনা দেন। এ ঘটনায় তার ভাই আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য নুরু মেম্বারসহ অজ্ঞাত ৭-৮ জনকে আসামি করে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি অপহরণ মামলা করেছেন।

এদিকে মামলা করার পর থেকে নুরু মেম্বার ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা জাহাঙ্গীর ও তার পরিবারের লোকজনকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন বলে মামলার বাদী জানান। আহত জাহাঙ্গীর বর্তমানে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *