ফরিদপুরে ফুটবল খেলায় বিরোধের জের ধরে দু গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত অর্ধশতাধিক

মাথাভাঙ্গা অনলাইন : ফরিদপুর জেলার সালথা উপজেলায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে উপজেলার ভাওয়াল ও গট্টি দুই ইউনিয়নের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষে চলছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সালথা থানার ওসিসহ দুই ইউপির অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। সালথা উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী কর্মকর্তা সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে কাউলী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবরুদ্ধ রয়েছেন।
জানা গেছে, শনিবার বিকেলে ভাওয়াল ইউনিয়নের ভাওয়াল গ্রামের সঙ্গে গট্টি ইউনিয়নের জয়ঝাপ গ্রামের স্থানীয়দের মধ্যে ফুটবল খেলা ছিল।
খেলা শেষে ভাওয়াল গ্রামের লোকজন জয়ঝাপ গ্রামের চার-পাঁচ যুবককে মারধর করে। এ ঘটনায় রোববার সকাল নয়টার দিকে ভাওয়ালের কয়েকজন জয়ঝাপ বাজারে এলে জয়ঝাপ গ্রামের লোকজন তাদের ওপর হামলা চালায়। হামলার পর দুই ইউনিয়নের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।
সংঘর্ষের খবর পেয়ে ওসি, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গেলে গ্রামবাসী গট্টি ইউনিয়নের কাউলী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চেয়ারম্যান ও ইউএনওকে অবরুদ্ধ করে রাখেন।
ভাওয়াল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অহিদ মোল্যা জানান, শনিবারের ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে রোববার সংঘর্ষের শুরু হয়েছে। এখনো সংঘর্ষ চলছে।
সালথা থানার এসআই শাহ আলম জানান, ওসিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ইউএনও ও চেয়ারম্যানকে উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *