প্রাথমিকে ৩৬০ স্কুলে কেউ পাস করেনি

স্টাফ রিপোর্টার: প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা ২০১৭তে সারাদেশের ৩৬০টি স্কুলে কোনও শিক্ষার্থী পাস করেনি। এসব স্কুলে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২ হাজার ৪৫৩।

গতকাল শনিবার দুপুর ১টায় সচিবালয়ে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী পরীক্ষার ফল প্রকাশ নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান। সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিসংখ্যান তুলে ধরে মন্ত্রী জানান, ১০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ মোট ৩৬০টি স্কুলে কোনও শিক্ষার্থী পাস করেনি। তবে কোনও শিক্ষার্থী পাস না করা স্কুলের তালিকায় সবচেয়ে বেশি (৭৫টি) রয়েছে আনন্দ স্কুল। এছাড়া ৬৮টি কিন্ডারগার্টেন ও সমসংখ্যক নন রেজিস্ট্রার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও কোনও শিক্ষার্থী পাস করেনি। আর নতুন জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৬৬টিতেও কোনও শিক্ষার্থী পাস করেনি। এদিকে শতভাগ পাস করেছে এমন বিদ্যালয় রয়েছে ৬৬ হাজার ২২৮টি। এরমধ্যে ২৩ হাজার ৯৭৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। রেজি. বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৮০টি, মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ২৮৫টি, পরীক্ষণ বিদ্যালয় ৬৩টি, অস্থায়ী রেজি. ২৪৭টি, কিন্ডারগার্টেন ১৭ হাজার ৫৫১টি, এনজিও ১ হাজার ৩২৭টি, কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৩৮টি, নন রেজি: বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ২ হাজার ১৯টি, উচ্চ বিদ্যালয় সংযুক্ত প্রাথমিক বিদ্যালয় ১ হাজার ২২৭টি, ব্র্যাক স্কুল ২ হাজার ৮৯২টি, শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয় ১০১টি, সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ২১টি, ১৫০০ বিদ্যালয় ৫৩৪টি, নতুন জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক বিদ্যালয় ১৫ হাজার ২১৯টি।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, একজন শিক্ষার্থীও পাস করেনি এমন স্কুলের মধ্যে সরকারি স্কুল রয়েছে ১০টি, রেজিস্ট্রার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে ২টি, অস্থায়ী রেজিস্ট্রার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৭টি, কিন্ডারগার্টেন ৬৮টি, এনজিও ৪৬টি, কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৭টি, নন রেজিস্ট্রার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৬৮টি, উচ্চ বিদ্যালয় সংযুক্ত প্রাথমিক বিদ্যালয় ৪টি, ব্র্যাক স্কুল ১টি, আনন্দ স্কুল৭৫টি, শিশুকল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয় ৩টি, ১৫০০ বিদ্যালয় ৩টি ও নতুন জাতীয়করণ হওয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় ৬৬টি।

এর আগে, গতকাল শনিবার বেলা পৌনে ১১টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষার ফলের অনুলিপি তুলে দেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী। এ বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার গড় পাসের হার ৯৫.১৮ শতাংশ। আর ইবতেদায়ী পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৯২.৯৪ শতাংশ। জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২ লাখ ৬২ হাজার ৬০৯টি।

২০১৭ সালের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় পাসের হার কম হওয়ার কারণ জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘ফলাফল ও জিপিএ-৫ গতবারের তুলনায় কম কেন, সে বিষয়ে এখনই ব্যাখ্যা দেয়া সম্ভব নয়। ফল খারাপ হওয়ার কারণ জানতে আমরা কাজ করবো। জাতি এর উত্তর জানতে পারবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *