পীরপুরে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর অন্তসত্ত্বা নিয়ে গুঞ্জন

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদরের পীরপুর গ্রামে ৫ম শেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর সাড়ে ৪ মাসের অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়লে ধর্ষণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৭ মাস আগে প্রাইভেট পড়ানো গ্রামের শিক্ষকের নামে মামলা হওয়ায় গ্রামের একাধিক ব্যক্তির মুখে অন্য কথা। পীরপুর গ্রামে আব্দুল খালেকের ছেলে আলামিন ও মন্টুর ছেলে শরিফ হোসেন বলেন, গ্রামের প্রভাবশালী কিছু ব্যক্তি টাকার বিনিময়ে মেয়ের পরিবারকে ম্যানেজ করে প্রকৃত ধর্ষণকারীকে আড়াল করে চুয়াডাঙ্গার কোনো এক এনজিওর সহযোগিতায় প্রাইভেট শিক্ষক বদিউজ্জামান বদির ছেলে চাঁদ আলীর নামে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের কারেন।
এদিকে হানেফ আলীর স্ত্রী রিজিয়া খাতুন, ঝন্টু হোসেনের ছেলে তরিকুল ইসলাম ও আব্দুল খালেক বলেন, গত ৭ মাস আগে অভিযুক্ত প্রাইভেট শিক্ষক স্কুলছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ালেও ৬ মাস আগে গ্রাম ছেড়ে ঢাকার নারায়ণগঞ্জে ফ্রেশ কোম্পানিতে চাকরি করছে। গ্রামবাসী জানান, আল্ট্রাসনোগ্রাফির মাধ্যমে জানা গেছে ধর্ষিতা স্কুলছাত্রী ৪ মাস ১৮ দিনের অন্তসত্ত্বা। এ বিষয়ে মেয়ের পরিবারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাদের কাউকে না পাওয়াই তাদের মতামত নেয়া সম্ভব হয়নি। প্রশাসনের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তা বিষয়টি সঠিক তদন্তসাপেক্ষে মূল অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছে গ্রামবাসী।
পীরপুরে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর অন্তসত্ত্বা নিয়ে গুঞ্জন
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদরের পীরপুর গ্রামে ৫ম শেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর সাড়ে ৪ মাসের অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়লে ধর্ষণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৭ মাস আগে প্রাইভেট পড়ানো গ্রামের শিক্ষকের নামে মামলা হওয়ায় গ্রামের একাধিক ব্যক্তির মুখে অন্য কথা। পীরপুর গ্রামে আব্দুল খালেকের ছেলে আলামিন ও মন্টুর ছেলে শরিফ হোসেন বলেন, গ্রামের প্রভাবশালী কিছু ব্যক্তি টাকার বিনিময়ে মেয়ের পরিবারকে ম্যানেজ করে প্রকৃত ধর্ষণকারীকে আড়াল করে চুয়াডাঙ্গার কোনো এক এনজিওর সহযোগিতায় প্রাইভেট শিক্ষক বদিউজ্জামান বদির ছেলে চাঁদ আলীর নামে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের কারেন।
এদিকে হানেফ আলীর স্ত্রী রিজিয়া খাতুন, ঝন্টু হোসেনের ছেলে তরিকুল ইসলাম ও আব্দুল খালেক বলেন, গত ৭ মাস আগে অভিযুক্ত প্রাইভেট শিক্ষক স্কুলছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ালেও ৬ মাস আগে গ্রাম ছেড়ে ঢাকার নারায়ণগঞ্জে ফ্রেশ কোম্পানিতে চাকরি করছে। গ্রামবাসী জানান, আল্ট্রাসনোগ্রাফির মাধ্যমে জানা গেছে ধর্ষিতা স্কুলছাত্রী ৪ মাস ১৮ দিনের অন্তসত্ত্বা। এ বিষয়ে মেয়ের পরিবারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাদের কাউকে না পাওয়াই তাদের মতামত নেয়া সম্ভব হয়নি। প্রশাসনের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তা বিষয়টি সঠিক তদন্তসাপেক্ষে মূল অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছে গ্রামবাসী।

Leave a comment

Your email address will not be published.