পায়ে দাঁত বসালেও বিষ ঢালার আগেই লাঠির আঘাত : দংশন করা সাপ ধরে ব্যাগে ভোরে চিৎকার কৃষকের

স্টাফ রিপোর্টার: নূর হাকিমের পায়ে দাঁত বসালেও লাঠির আঘাতের কারণে বিষ ঢালতে পারেনি বিশাল আকৃতির গোখরা। গতকাল শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে বাড়ির অদূরে মাঠের ঝালক্ষেতে কাজ করার সময় সাপে দংশন করে পায়ে। নূর হাকিম হাতে থাকা লাঠি দিয়ে সজোরে আঘাত করে সাপের মাথায়। সাপ লুটিয়ে পড়লে কাছে থাকা ব্যাগে ভরে। বাড়িতে খবর দেয়। বাড়ির লোকজন তাকেসহ তার বন্দি করা সাপ নিয়ে হাসপাতালে হাজির হন।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বাঁধন খুলে পর্যবেক্ষণে রাখার পর নিশ্চিত করেন, নূর হাকিমের পায়ে সাপে দাঁত বসালেও বিষ ঢালতে পারেনি। এ কারণে তার শরীরে এন্টি¯েœক ভেনমও দিতে হবে না। অথচ এই রোগীকে যদি কোনো ওঝা কবিরাজ পেতো, তাহলে তারা ঝাড়ফুঁকের হরেক রকমের নাটক, কাটা ছেড়া করে সুস্থ করে তোলার দাবি করতো।
না, গতকাল পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে এন্টি¯েœক ভেনম পৌঁছায়নি। চলতি বর্ষার ঝুঁকিপূর্ণ মরসুমে তা আদৌ পৌঁছুবে কি-না তাও অনিশ্চত। তবে হাসপাতালের অদূরেরই একটিই মাত্র ফার্মেসিতে এন্টি¯েœক ভেনম পাওয়া যাচ্ছে। বিষধর সাপে কাটলে এবং তাকে দ্রুত বাঁধন দিয়ে হাসপাতালে নেয়া হলে ওখান থেকেই চড়া মূল্যে কিনতে হবে এন্টি¯েœক ভেনম। অথচ অতিব জরুরি এ ভ্যাকসিন হাসপাতালেই পর্যাপ্ত মজুদ থাকার কথা। কেন নেই? সংশ্লিষ্টদের গতবাধা কথা, চাহিদা পাঠিয়েছি, বরাদ্দ দেয়নি। বরাদ্দ না পাওয়া গেলে আমরা কি করবো।

Leave a comment

Your email address will not be published.