পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে নাম না থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে কোটচাঁদপুরের এক সাংবাদিককে পিটিয়েছে বিএনপি নেতা

ঝিনাইদহ অফিস: পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে নাম না থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের স্থানীয় সাংবাদিক আলমগীর হোসেনকে বেধড়ক মারপিট করেছে সাবদালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মিজানুর রহমান লাবলু। গত বৃহস্পতিবার রাতে কোটচাঁদপুর উপজেলা বিএনপি অফিসে সাংবাদিক আলমগীর হোসেনকে মোবাইলফোনে ডেকে এনে তাকে চেয়ার দিয়ে মারপিট করে ওই নেতা।

এ ঘটনায় রাতেই কোটচাঁদপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল শুক্রবার সকালে স্থানীয় সাংবাদিকরা কোটচাঁদপুর প্রেসক্লাবে জরুরিসভায় মিলিত হন। সাংবাদিক খায়রুল হোসেন সাথীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- শেখ নজরুল ইসলাম, কাজী মৃদুল, আলমগীর কবিরসহ স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ। সাংবাদিকরা যশোর থেকে প্রকাশিত দৈনিক লোকসমাজ পত্রিকায় সাবদালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মিজানুর রহমান লাবলুর নাম না থাকায় সাংবাদিক আলমগীর হোসেনকে মারপিটের নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ ছাড়া জরুরিসভায় স্থানীয় বিএনপির সকল প্রকার সংবাদ বর্জন ও অবিলম্বে দোষি বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান লাবলুকে গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়।

কোটচাঁদপুর থানার ওসি সাহিদুল ইসলাম শাহীন জানান, সাংবাদিক মারপিটের ঘটনায় আলমগীর হোসেন বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান লাবলুর বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। রাত থেকেই তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

এদিকে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে প্রেসক্লাব সভাপতি এম সাইফুল মাবুদ, সাধারণ সম্পাদক নিজাম জোয়ারদার, সাংবাদিক বিমল সাহা, মোস্তফা মাজেদ, আজাদ রহমান, এম রায়হান, আসিফ ইকবাল কাজল, আমিনুল ইসলাম লিটন, এম  রবিউল ইসলাম রবিসহ সকল সাংবাদিকবৃন্দ দোষী ব্যক্তির গ্রেফতারের দাবি জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *