নৌকা প্রতীক পাইয়ে দেয়ার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউনিয়নের কালুপোল গ্রামে এক মেম্বার প্রার্থীকে নৌকা প্রতীক পাইয়ে দেয়ার নাম করে ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে তিতুদহ ইউনিয়ন যুবলীগের সহসভাপতি রাশেদুজামান পলাশের বিরুদ্ধে। টাকা ফেরত পেতে পলাশের পিছু পিছু ঘুরেও টাকা ফেরত পায়নি মেম্বর প্রার্থী পিন্টু রহমান।

অভিযোগে জানা গেছে, চলতি বছর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চ্যোয়ারম্যান, মেম্বার ও মহিলা মেম্বারদের দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার ঘোষণা দেন নির্বাচন কমিশন। এ নিয়ে বিতর্ক উঠলে শুধুমাত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীদের দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত দেন নির্বাচন কমিশন। সে সময় আ.লীগের কর্মী হিসাবে দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াউটুপি ইউনিয়নের কালুপোল গ্রামের আইয়ুব বিশ্বাসের ছেলে পিন্টু রহমান। পিন্টু রহমানের আগ্রহ দেখে তাকে নৌকা প্রতীক পাইয়ে দেয়ার নাম করে ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় গোষ্ঠবিহার গ্রামের জহুরুলের ছেলে এনজিও ব্যবসায়ী তিতুদহ ইউনিয়ন যুবলীগের সহসভাপতি পলাশ। জেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে পিন্টু যখন দেখলো মেম্বার প্রার্থীদের দলীয় প্রতীকের দরকার নেই তখন সে টাকা ফেরত চাইল পলাশের নিকট। পলাশ ওই টাকা ফেরত না দিয়ে টালবাহানা শুরু করে দেয়। টাকা ফেরত পেতে পিন্টু ঘুরছে পলাশসহ অনেকের নিকট। এ বিষয়ে পলাশের সাথে একাধিকবার মোবাইলফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *