নির্বাচনী ব্যবস্থা ধ্বংস গণতন্ত্র আজ নির্বাসিত

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশে এখন সত্যিকার অর্থে নির্বাচিত কোনো সংসদ ও সরকার নেই। সবকিছু একতরফা ও একদলীয় ভিত্তিতে চলছে। যে গণতন্ত্রের জন্য মানুষ অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছে, সেই গণতন্ত্র আজ নির্বাসিত। যে তথাকথিত সংসদ গঠন করা হয়েছে, সেই সংসদের বেশিরভাগ সদস্য নির্বাচিত হয়নি। বাকি সদস্যদেরকেও ভোটাররা নির্বাচিত করেননি। প্রহসনের মাধ্যমে তাদেরকে নির্বাচিত বলে ঘোষণা করা হয়েছে। সম্পূর্ণ ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে নির্বাচনী ব্যবস্থাকে। গতকাল বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আদালতে এ বক্তব্য তুলে ধরেন। পরে তার সময় আবেদনের প্রেক্ষিতে আত্মপক্ষ সমর্থনে অসমাপ্ত বক্তব্য রাখার জন্য ২ নভেম্বর দিন ধার্য করে দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান। বকশিবাজারের কারা অধিদফতরের মাঠে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতে গত ১৯ অক্টোবর খালেদা জিয়া আত্মপক্ষ সমর্থনে প্রথম বক্তব্য পেশ করেন। গতকাল দ্বিতীয় দিনের মত বক্তব্য উপস্থাপন করেন তিনি।

বিচারকের উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে এনে জনপ্রতিনিধিত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই। এটাই কি আমার অপরাধ? সেই কারণেই কি এতো হেনস্তা, এতো মামলা-মোকদ্দমা আমার বিরুদ্ধে? তিনি বলেন, আপনি (বিচারক) দেখেছেন, শাসক মহলের নির্দেশে আমার স্বাধীন চলাচল বিভিন্নভাবে ব্যাহত করা হয়েছে। প্রাণনাশের উদ্দেশে আমার ওপর বারবার হামলার ঘটনা সারা বিশ্ব দেখেছে। এই বয়সে এতো ব্যস্ততা ও নানান সমস্যার মধ্যেও যতদূর সম্ভব আদালতে সশরীরে হাজির থাকার চেষ্টা করে যাচ্ছি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *