দৌলতপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামতের অর্থ হরিলুট

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় চলতি বছরে প্রথম ধাপে ১০টি প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত ও সংস্কারের টাকা কাজ না করে সংশ্লিষ্টরা ভাগ-বাটোয়ারা করে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, দৌলতপুরের রহমতপুর, তারাগুনিয়া মডেল, সোনাইকুন্ডি, চর বাজুমারা, রিফাইতপুর, শেরপুর, পুর্ব ফিলিপনগর, ধর্মদহ, পিপুলবাড়িয়া ও আড়িয়া মণ্ডলপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য চলতি বছরে প্রথম ধাপে প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত ও সংস্কারের নামে প্রতিটি বিদ্যালয়ের বিপরীতে ১ লাখ ৫৮ হাজার ২৫০ টাকা করে সর্বমোট ১৫ লাখ ৮২ হাজার ৫শ টাকা বরাদ্দ আসে। এরপর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কায়খসরু ও প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ মাস্টার যোগসাজশ করে প্রতিটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছ থেকে ৩০-৪০ হাজার টাকা করে নেয়ার পর ভুয়া বিল ভাউচারের মাধ্যমে বিল প্রদান করেছেন। ফলে ২/১ টি বিদ্যালয়ে সামান্য কাজ হলেও অধিকাংশ বিদ্যালয়ে কোনো মেরামত ও সংস্কারের চিহ্ন খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কায়খসরুর নিকট জানতে চাইলে তিনি কোনো সদুত্তর না দিয়ে চায়ের নিমন্ত্রণ জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *