দৌলতদিয়ায় ফেরির অপেক্ষায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা

ভ্রাম্যমা প্রতিনিধি: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে কয়েকশ যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে অধিকাংশই যাত্রীবাহী বাস ও ছোট গাড়ি। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় ঘাট এলাকায় গিয়ে এ তথ্য জানা যায়। চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুরসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রাকরা পরিবহনগুলোর যাত্রীদের ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘাটে অপেক্ষায় থেকে চরম দুর্ভোগ পোয়াতে হচ্ছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লি­উটিসি) ও ঘাট-সংশ্লি­ষ্ট

সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল আজহা ও দুর্গাপূজার ছুটি শেষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাসের চাপ রয়েছে। সেই সাথে রয়েছে ছোট গাড়ির চাপও। গতকাল রোববার সন্ধ্যা পর্যন্তও এ চাপ অব্যাহত ছিলো। গত শনিবার সকালে একটি বড় ফেরি বিকল হলে যানবাহনের চাপ আরও বেড়ে যায়। এর ফলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘাটে আটকে থাকতে হচ্ছে যাত্রীদের। বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক আবু আলম হাওলাদার বলেন- শনিবার দুপুরে দুই নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুনে সমস্যার কারণে ঘাটটি বন্ধ হওয়ার প্রায় চার ঘণ্টা পর সন্ধ্যা ছয়টার দিকে চালু হয়। কিন্তু ঘণ্টা তিনেক চলার পর আবারও একটি ফেরির ধাক্কায় ওই ঘাটের ডাউন পকেটের পন্টুনে সমস্যা দেখা দেয়। এর ফলে দুই নম্বর ঘাটের একটি পকেট বন্ধ রেখে অপর পকেট দিয়ে যানবাহন ফেরিতে ওঠানামা করতে থাকে। মেরামত শেষে গতকাল দুপুরে ওই পকেট আবার চালু করা হয়। বিআইডব্লি­উটিসি আরিচা কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক মো. জিল্লুর রহমান জানান, এ ঘাটে তিন দিন ধরে যানবাহনের চাপ অব্যাহত রয়েছে। গত শনিবার সকাল ছয়টা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত এক হাজার ৮৮০টি যানবাহন দৌলতদিয়া দিয়ে ফেরি পার হয়। এদিকে রোববার সকাল নয়টার দিকে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান নামের একটি ফেরি বিকল হয়ে পড়লে যানবাহনের চাপ আরও বেড়ে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *