দেবযানীকে নিয়ে দিল্লি-ওয়াশিংটন তুমুল বিরোধ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: নিউ ইয়র্কে ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানী খোবরাগাড় গ্রেফতারকে কেন্দ্র করে নয়াদিল্লি ও ওয়াশিংটনের মধ্যে তুমুল বিরোধ দেখা দিয়েছে। ভারত কর্তৃপক্ষ মঙ্গলবার দেবযানী গ্রেফতারের ঘটনার পাল্টা জবাবে দিল্লিতে মার্কিন দূতাবাসের সামনে থেকে নিরাপত্তা বেষ্টনী তুলে নিয়েছে। নয়াদিল্লির পুলিশ দুটো ট্রাক এবং বুলডোজার দিয়ে কংক্রীটের বেষ্টনী ভেঙে ফেলে। দূতাবাসের বাইরের রাস্তায় গাড়ি চলাচল নিয়ন্ত্রণের জন্য এ বেষ্টনী ব্যবহার করা হত। নয়াদিল্লির পুলিশের কাছ থেকে বেষ্টনী সরানোর ব্যাপারে কোনো মন্তব্য পাওয়া না গেলেও টিভি’র খবরে এর আগে জানানো হয়, দেবযানী গ্রেফতারের জবাবে ভারতের নেয়া কয়েকটি পদক্ষেপের এটিও একটি। এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসেরও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। দেবযানীকে গ্রেফতারের প্রক্রিয়া রিয়ে আপত্তি তোলাসহ তাকে শারিরীকভাবে হেনস্থা করে তল্লাশি চালানো এবং কূটনৈতিক রক্ষাকবচ দিতে যুক্তরাষ্ট্রে অস্বীকৃতি নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছে ভারত। বিরোধের জেরে এ সপ্তায় ভারত সফরগামী মার্কিন আইনপ্রণেতাদের প্রতিনিধিদলের সাথেও প্রস্তাবিত বৈঠক বাতিল করেছেন ভারতের দু প্রধান রাজনৈতিক দলের নেতারাসহ কয়েকজন শীর্ষ রাজনীতিবিদ। গৃহকর্মীর ভিসা আবেদনে মজুরি নিয়ে মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার ভারতীয় কনস্যুলেটের ডেপুটি কনসাল জেনারেল দেবযানী খোবরাগাড়েকে আটকের পর প্রকাশ্যে হাতকড়া পরিয়ে নিয়ে যায় নিউ ইয়র্কের পুলিশ। পরে আড়াই লাখ ডলারে তাকে জামিন দেয়া হয়। কিন্তু দেবযানী খোবরাগাড়েকে গ্রেফতারের সময় তার সাথে বর্বরের মতো আচরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা শিবশঙ্কর মেনন। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতর এসব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেছে, দেবযানীকে যথাযথ আইনি প্রক্রিয়াতেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *