দু মেয়েকে বিক্রির অভিযোগে যশোরে মা আটক

স্টাফ রিপোর্টার: দু মেয়েকে ভারতে বিক্রির অভিযোগে যশোর থেকে নার্গিস (৪২) নামের এক মহিলাকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর শহরের ঘোপ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। যশোরের মণিরামপুর উপজেলার বড়দিয়া গ্রামের জাফর আলীর মেয়ে। নার্গিসের মেয়ে সাথী (১৮) তার মায়ের বিরুদ্ধে এ পাচারের অভিযোগ এনেছে। পাচারের শিকার সাথী প্রায় ৪ মাস আগে ভারত থেকে উদ্ধার হয়ে দেশে ফিরে আসে। সাথীর অভিযোগ, প্রায় এক বছর আগে তার মা নার্গিস তাকে ও তার বোন সুমীকে নিয়ে ভারতে যায়। এরপর মুম্বাই শহরে নিয়ে তাদেরকে দালালের কাছে বিক্রি করে দেয়। পরে ভারতীয় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। কিন্তু বোন সুমীর এখনো কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। প্রায় ৪ মাস আগে মানবাধিকার সংস্থা রাইটস-এর মাধ্যমে দেশে ফিরে আসে সাথী। নার্গিসের স্বামীর সাথে তার ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর কাজের কথা বলে দু মেয়েকে নিয়ে সে ভারতে গিয়েছিলো। যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ওহিদুজ্জামান জানান, দু মেয়েকে পাচারের অভিযোগে নার্গিসকে আটক করা হয়েছে। পাচারের পর উদ্ধার হওয়া মেয়েই তার মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে। তবে সাথীর মা নার্গিসের দাবি, তার স্বামীর সাথে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর সে যশোরের বিসিক এলাকায় বাসাবাড়ির কাজসহ বিভিন্ন কাজ করে জীবন চালায়। ওই মেয়ে কীভাবে পাচার হয়েছে তা সে জানে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *