দুয়েকটি বিছিন্ন ঘটনা নিয়ে গোটা পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন তোলার সুযোগ নেই

মেহেরপুর অফিস: খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি এসএম মনির-উজ-জামান বলেছেন, দুয়েকটি বিছিন্ন ঘটনা নিয়ে গোটা পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন তোলার সুযোগ নেই। গতকাল সোমবার বেলা ১১টায় মেহেরপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে খুলনা বিভাগীয় মাসিক অপরাধ পর্যালোচনাসভায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে কয়েকজন পুলিশ সদস্যদের বিতর্কিত কর্মকান্ডের বিষয়ে এসএম মনিরুজ্জামান আরো বলেন, পুলিশ সদস্যরাও অন্য মানুষের মতো সামাজিক জীবন রয়েছে। পুলিশের কেউ যদি বিপথে পরিচালিত হয় বা অন্যায় কার্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত থাকে তাহলে সমাজের অন্যান্য অপরাধীদের মতোই তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। পুলিশবাহিনী সকলের নিরাপত্তা বিধান করে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, দু-একটি ঘটনা ঘটতেই পারে। মানুষ তো আর ফেরেস্তা না। এগুলো ওইভাবে বড় আকারে না দেখে পুলিশের সেবার দিকে তাকালে সেটি কিছুই নয় বলে মনে হবে। কয়েকজন পুলিশ সদস্যদের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের বিষয়ে মানুষের উদ্বেগকে সম্মান জানিয়ে তিনি বলেন, বিশাল এ বাহিনীকে আরো সুন্দর ও সুশৃঙ্খল করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে যতোটুকু নজর দেয়া দরকার সে বিষয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সরকারের নজর রয়েছে।
খুলনা রেঞ্জ পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ডিআইজি এসএম মনির-উজ-জামানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি একরামুল হাবীব, ৱ্যাব-৬ খুলনা অধিনায়ক খোন্দকার রফিকুল ইসলাম, মেহেরপুর পুলিশ সুপার হামিদুল আলম, খুলনা পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান, যশোর পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির, কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম, বাগেরহাট পুলিশ সুপার নিজামুল হক মোল্লা, ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন, মাগুরা পুলিশ সুপার একেএম এহসান উল্লাহ, নড়াইল পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান, আরআরএফ খুলনা কমান্ড্যান্ট আলী আহম্মদ খান ও রেঞ্জ অফিসের স্টাফ অফিসার একেএইচ জাহাঙ্গীর হোসেন। এর আগে ডিআইজি এসএম মনির-উজ-জামান মেহেরপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ের নবনির্মিত দৃষ্টিনন্দন প্রধান ফটকের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *