দুর্নীতি ও লুটপাট ঠেকাতে সাংবাদিকদের সহায়তা চাইলেন ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক

 

স্টাফ রিপোর্টার: ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন সামাজিক নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন খাতে মাঠপর্যায়ে দুর্নীতি ও লুটপাট ঠেকাতে সাংবাদিকদের সহায়তা কামনা করেছেন। তিনি বুধবার ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বর্তমান সরকারের সাফল্য অর্জন ও উন্নয়ন ভাবনা শীর্ষক জনগণকেু অবহিতকরণ এবং সম্পৃক্তকরণের লক্ষ্যে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান। ঝিনাইদহ জেলা তথ্য অফিস এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম রায়হান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় বিষয় ভিত্তক আলোচনায় অংশ নেন ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শেখ সেলিম, সিনিয়র সাংবাদিক বিমল সাহা, আমিনুর রহমান টুকু, দেলোয়ার কবীর, এম সাইফুল মাবুদ, আসিফ ইকবাল কাজল, মাহমুদ হাসান টিপু, আজিজুর রহমান সালাম, ফয়সাল আহম্মেদ, আহম্মেদ নাসিম আনসারী ও শাহানুর রহমান। জেলা তথ্য অফিসার রেজাউল করিম অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন।

জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন বলেন, রাষ্ট্র ও সমাজের প্রয়োজনে মানুষের মাঝেই এখন ভালো মানুষ আমাদের খুঁজতে হয়। তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির উন্নতির কারণে আমাদের সন্তানদের সৃজনশীলতা নষ্ট হচ্ছে। ভেঙে যাচ্ছে পারিবারিক বন্ধন। সন্তানরা পিতা মাতার সাথে সময় না কাটিয়ে মোবাইল নিয়েই সময় পার করে দিচ্ছে। তিনি বলেন দেশে যেমন উন্নয়ন হচ্ছে, তেমন লটুপাটও হচ্ছে। আর এই লুটপাটকারী কারা তা সবাই জানেন। তিনি বলেন আমি দুর্নীতি করবো না দুর্নীতিকেও প্রশ্রয় দেবো না। তিনি সরকারের উন্নয়ন সফলাতা দাবি করে বলেন, আজ দেশে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু হচ্ছে। বাংলাদেশ এখন অনেক উন্নত ও সৃজনশীল রাষ্ট্র।

জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন আরো বলেন, দেশে এডিবি ও বিশ্ব ব্যাংকের কিছু দালাল আছে, যারা আমাদের নিজস্ব অর্থায়নে কিছু করতে দেয় না। তারা আমাদের বিদেশ নির্ভর করে রাখতে চায়। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বর্তমান সরকারের সাহসী সিদ্ধান্তে আমরা বিদেশ নির্ভরতা কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়েছি। তিনি বলেন, ঝিনাইদহের শিক্ষা বিভাগে কিছু অনিয়ম হচ্ছে। শিক্ষকরা ক্লাসের পরিবর্তে কোচিং নিয়ে বেশি ব্যস্ত থাকছে। এগুলো ধরা হবে। শিক্ষা নিয়ে কোন বানিজ্য বা অনিয়ম সহ্য করা হবে না। সাংবাদিক ও প্রশাসনের লক্ষ্য উদ্দেশ্য একই। তাই সুশাসন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় সাংবাদিকদের পাশে থাকা জরুরী। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্য বক্তারা, ঝিনাইদহের বিদ্যুত উন্নয়ন, সড়ক ও জনপথ বিভাগে লুটপাট, কর্মসৃজন, এলজিএসপি, টিআর, জেআর ও কাবিটার দুর্নীতি বন্ধের দাবী জানান।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *