দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা দর্শনা হিরা সিনেমা হল ভেঙে ফেলা হচ্ছে

 

দর্শনা অফিস:বছর দশেক আগেও বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম ছিলো সিনেমা হল। প্রিয়জনকে সাথে নিয়ে সিনেমা দেখার অভ্যাস ছিলো অনেকেরই। দিনদিন আধুনিকতার ছোঁয়ায় বদলে গেছে অনেক কিছু। মানুষের মধ্যে থেকে কমেছে ধৈর্য। টানা তিন ঘণ্টা সিনেমা হলে বসে সিনেমা উপভোগ করার আগ্রহ নেই কারো। সেই সাথে দেশীয় সিনেমায় অশ্লীলতাকে দায়ী করেছে অনেকেই। এছাড়া ডিস ক্যাবল, মোবাইলফোন, ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ঘরে বসে সিনেমা উপভোগ করা একেবারেই সহজ হয়ে পড়েছে। যে কারণে সিনেমা দেখার আগ্রহ হারিয়েছে সাধারণ মানুষ। চুয়াডাঙ্গা জেলায় ছিলো অসংখ্য সিনেমা হল। জেলার দামুড়হুদা উপজেলায় তুলনামূলকভাবে সিনেমা হলের সংখ্য কম ছিলোনা। উপজেলার বড় দুটি সিনেমা হলের মধ্যে ছিলো দর্শনায় দর্শন ও হিরা সিনেমা হল। দর্শকের অভাবে বছর পাঁচেক আগে দর্শন সিনেমা হল বন্ধ করার কিছুদিন পরই ভেঙে ফেলা হয় ভবন। একই কারণে কিছু দিনের মাথায় বন্ধ করা হয় হিরা সিনেমা হল। এরই মধ্যে হিরা সিনেমা হলের যন্ত্রাংশ বিক্রি করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি শুরু হয়েছে ভবন ভাঙার কাজ। ফলে দামুড়হুদা উপজেলা এখন সিনেমা হল শূন্যে পরিণত হলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *