দামুড়হুদা বিএনপির আহ্বায়ক লিয়াকত আলী শাহসহ গ্রেফতার ১৪

চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ব্যাপক তল্লাশি অভিযান

 

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গতপরশু থেকে গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছে চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদা উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক লিয়াকত আলী শাহ। এছাড়া পুলিশ জেলা বিএনপির অনেকের বাড়িতেই তল্লাশি অভিযান চালিয়েছে। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত ছিলো।

চুয়াডাঙ্গা ডিবি পুলিশ গোকুলখালী বাজারে চিৎলা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি শরিফুল ইসলাম মুকুলের বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে। গোকুলখালী থেকে খোকাই মণ্ডলের ছেলে ওয়েল্ডিং মিস্ত্রি বেল্টুকে ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করে বলে জানা যায়। এ সময় জামাল হোসেনের ছেলে জামিলকে ডিবি পুলিশ আটকের কিছুক্ষণ পরই ছেড়ে দিয়েছে।

            দামুড়হুদা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ১৮ দলীয় জোটের সংগ্রাম কমিটির উপজেলা আহ্বায়ক লিয়াকত আলী শাহ ও থানা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্মসাধারণ সম্পাদক তাজ আলমকে পুলিশ আটক করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-যশোর মহাসড়কের দামুড়হুদা উপজেলা সদরের ডিএস দাখিল মাদরাসার সামনে সড়ক অবরোধ ও পিকেটিং করার সময় চুয়াডাঙ্গা জেলার পুলিশ সুপার আব্দুর রহিম শাহ চৌধুরী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাদেরকে আটক করেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিএনপি ও জামায়াত সমর্থকরা লাঠিসোঁটা হাতে নিয়ে উপজেলা শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এর পরপরই আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পাল্টা মিছিল বের করে। এ সময় মহিউদ্দিন (৫৫) নামের এক জামায়াত সমর্থককে ছাত্রলীগের কর্মীরা বাটাম দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। আওয়ামী লীগের সাথে জামায়াত-বিএনপির সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটলেও পুলিশের মারমুখি ভূমিকায় শেষমেষ তা কোনো সহিংসু রূপ নিতে পারেনি। পুলিশ উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। দোকানপাট ভাঙচুরের আশঙ্কায় উপজেলা শহরের অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ করে দেন দোকান মালিকরা। বেলা সাড়ে ১০টার পর দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আওয়ামী লীগ এবং ব্রিজমোড়ে বিএনপি-জামায়াত সমর্থকরা লাঠিসোঁটা হাতে অবস্থান নেয়। চৌরাস্তার মোড়, বাসস্ট্যান্ড এলাকাসহ উপজেলা শহরের প্রতিটি মোড়ে মোড়ে দিনভর অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিলো। দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আহসান হাবিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক লিয়াকত আলী শাহকে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে রাখা হয়েছে। কোনো মামলা হয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি জানান, বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে। সেইসাথে যেকোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ তৎপর রয়েছে।

এদিকে উপজেলা সার্ভার স্টেশনে (নির্বাচন অফিস) হামলার আশঙ্কায় কার্যালয়ের সামনে দিনভর পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়। উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবু দাউদ জানান, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে নির্বাচন অফিসের কার্যক্রম পরিচালনায় সার্বিক সহযোগিতার জন্য সচিবালয় থেকে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। তারই আলোকে নির্বাচন অফিসে পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে। গত সোমবার সন্ধ্যায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে আগামী ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফশিল ঘোষণার পরপরই জামায়াত-বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা উপজেলা শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে এবং গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে সড়ক অবরোধসহ পিকেটিং করার লক্ষ্যে ডিএস দাখিল মাদরাসা প্রাঙ্গণে জড়ো হয়।

            পদ্মবিলা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, জেলা সদরের যাদুবপুর গ্রামের বিল্লাল  ও জলিবিলা গ্রামের জয়নালকে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ আটক করেছে। এরা দুজনই বিএনপির সদস্য।  চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের যাদুবপুর গ্রামের আজগর
আলীর ছেলে বিল্লাল এবং জলিবিলা গ্রামের আবদুল হামিদের ছেলে জয়নালকে চুয়াডাঙ্গা থানা পুলিশ সোমবার রাত ২টার দিকে আটক করে। তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

            ঝিনাইদহ অফিস জানিয়েছে, অবরোধে নাশকতার আশঙ্কায় ঝিনাইদহে বিএনপি ও জামায়াতের ৮ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সকালে হরিণাকুণ্ডু ও সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি কাজী জালাল উদ্দীন আহমেদ জানান, নাশকতার আশঙ্কায় সকালে ঝিনাইদহ শহরের পবহাটি ও আদর্শপাড়া এলাকায় বিভিন্ন ছাত্রাবাসে তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় দু শিবিরকর্মী, এক জামায়াত নেতা ও দু বিএনপিকর্মীকে আটক করা হয়। অন্যদিকে হাটগোপালপুর বাজার থেকে দু বিএনপিকর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

            হরিণাকুণ্ডু প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে শাহীন আলম নামে এক যুবদল নেতাকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত যুবদল নেতা শাহীন আলম চাঁদপুর ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি বলে জানা গেছে। হরিণাকুণ্ডু থানার পুলিশ পরিদর্শক মহিবুল ইসলাম জানান, গত ২৮ অক্টোবর ১৮ দলীয় জোটের হরতাল চলাকালীন সময়ে বিএনপি-জামায়াতকর্মীরা উপজেলা পরিষদ মোড় ও হরিণাকুণ্ডু বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায় ও আ.লীগ নেতাকর্মীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বাড়িঘর ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটতরাজ করে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা ১১টি ও পুলিশের পক্ষ ১টিসহ হরিণাকুণ্ডু থানায় ১২টি মামলা দায়ের হয়েছে। এ মামলায় এবং নাশকতার আশঙ্কায় মঙ্গলবার ভোরে পুলিশের একটি দল উপজেলার চাঁদপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার  করে।

Leave a comment

Your email address will not be published.