দামুড়হুদা জয়রামপুর স্টেশনপাড়ায় তিন সন্তানের জননীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দীর্ঘদিন দেহভোগ : অবশেষে থানায় অভিযোগ

দামুড়হুদা অফিস: দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের জয়রামপুর স্টেশনপাড়ার পরস্ত্রীকে বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে একাধিকবার দেহভোগ করে লম্পট হায়দার আলী। তার বিরুদ্ধে দামুড়হুদা থানায় অভিযোগ করেছে পরস্ত্রী তিন সন্তানের জননী পারভীনা আক্তার (২৮)।

জানা গেছে, জয়রামপুর স্টেশনপাড়ার রজব আলীর ছেলে হায়দার আলীর (৩৫) সাথে একই পাড়ার জান্নাত আলীর স্ত্রী পারভীনা পরকীয়ায় লিপ্ত হয়। দীর্ঘদিন থেকে তারা একে অপরের সাথে মিলিত হয়। হায়দার আলীর পরামর্শে পারভীনাকে দিয়ে তার স্বামীকে প্রায় ছয় মাস যাবত ভাতের সাথে ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে তারই ঘরে স্ত্রীর সাথে অবৈধ কাজে লিপ্ত হতো। বিষয়টি জানাজানি হলে গত শনিবার রাতে জয়রামপুর স্টেশনপাড়ায় সালিস বৈঠক হয়। এতে স্ত্রী পারভীনা খাতুন হায়দার আলীর সাথে তার দৈহিক সম্পর্কের কথা জানিয়ে তার সাথে বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়। সালিস চলাকালে কৌশলে সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে হায়দার আলী পালিয়ে যায়। গ্রামের লোক উত্তেজিত হয়ে হায়দার আলীকে খুঁজতে থাকে। বর্তমানে সে পলাতক আছে। এ ব্যাপারে পারভীনা বাদী হয়ে হায়দার আলীর বিরুদ্ধে দামুড়হুদা থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.