দামুড়হুদা কানাইডাঙ্গায় ঈদপুনর্মিলনী ও কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি হাজি আলী আজগার টগর

 

সংবিধানিকভাবেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে

স্টাফ রিপোর্টার: দামুড়হুদার কানাইডাঙ্গায় ঈদ পুনর্মিলনী ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা সভায় সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগর টগর বক্তব্য রাখেন। তিনি দেশ বিরোধী চক্রান্ত প্রতিহত করার আহ্বান জানান। অপরদিকে চুয়াডাঙ্গার ভিজে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮৮ সালের ব্যাচ ঈদ পুর্নমিলনীর আয়োজন করে। পূর্নমিলনিতে তারা কমিটিও গঠন করেছে।

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার কানাইডাঙ্গায় ঈদ পুনর্মিলনী ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের কানাইডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব কানাইডাঙ্গার আয়োজনে পুনর্মিলনী ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর বলেন, বর্তমান প্রজন্মকে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব আমাদের সকলের। আমাদের সন্তানেরা কখন কোথায় যাচ্ছে, কী করছে সে দিকে সজাগ থাকতে হবে। সে কোনোভাবে যাতে অপরাধমূলক কোনো কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িয়ে না পরে তা খেয়াল রাখার দায়িত্ব সকল অভিভাবকের। এমপি টগর আরো বলেন, আ.লীগ সরকারের উন্নয়ন দেখে ঘাবড়ে গেছে বিএনপি-জামায়াত জোট। আগামী নির্বাচনে আবারো তাদের নিশ্চিত পরাজয় বুঝতে পেরে কারণে-অকারণে দেশে হরতাল দিয়ে অরাজকতা সৃষ্টি করছে। সরকারের উন্নয়ন নস্যাত করার পাঁয়তারায় মেতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে বিএনপি-জামায়াত তথা ১৮ দলীয় জোট। আ.লীগ হানাহানিতে বিশ্বাসি নয়, তাই ওদের দাত ভাঙা জবাব দেয়া হবে রাজনৈতিকভাবেই। বিএনপি তাদের যুদ্ধাপরাধী দোসরদের নিয়ে নির্বাচন বানচালের যে নীল নকশাই তৈরি করুক নাকেন, তাতে কোনো লাভ নেই। সঠিক সময়েই বাংলার মাটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইঞ্জি. রাশেদুল হকের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন, লীড ভার্সিটি কোচিং সেন্টারের চেয়ারম্যান রুহুল আমীন মল্লিক। বিশেষ অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আ.লীগের যুগ্মসম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান জাকারিয়া আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ভুট্টো। উপস্থিত ছিলেন আ.লীগ নেতা সিরাজুল আলম, আতিয়ার রহমান হাবু, নজীর আহম্মেদ, কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই মেজবাহুর রহমান, যুবলীগ নেতা আ. হামিদ, ছাত্রলীগ নেতা মিঠু, বিশ্বাস, শিরিন, রাকিবুল হাসান, হানিফ, জাহাঙ্গীর, গোলাম মোস্তাফা, হাফিজুর, মিজানুর, তাপস, ফারুক, ইভা। অনুষ্ঠান শেষে ৫১ জন এসএসসি/এইচএসসি কৃতী  শিক্ষার্থীকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন এমপি টগরসহ অতিথিরা। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব কানাইডাঙ্গার সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শরীফুজ্জামান।

এদিকে চুয়াডাঙ্গা ভি.জে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ১৯৮৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় শহরতলী দৌলাতদিয়াড়ে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদের চাতাল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯৮৮ ব্যাচের এসএসসি শিক্ষার্থী শাম্স গোলাম হোসেন আবিরের সভাপতিত্বে এ ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই মরহুম অ্যাড. জাকারিয়ার ছেলে মরহুম শিক্ষার্থী ফিরোজ জাহাঙ্গীর লিঙ্কনের রুহের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মঈনুল ইসলামের পরিচালনায় দোয়া করা হয়।

এরপর মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় বিভিন্ন বিষয় স্থান পায়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিষয় ছিলো- ‘চুয়াডাঙ্গার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কীভাবে সহযোগিতা করে এ জেলার অবস্থানকে আরও এগিয়ে নেয়া যায়’ এরই আলোকে ফ্রেন্ডস কো-অপারেটিভ সোসাইটি গঠন করা হয়।

১৯৮৮ ব্যাচের এসএসসি শিক্ষার্থী শামস গোলাম হোসেন আবিরকে সভাপতি ও আতিকুল হক সন্টুকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৪ সদস্য বিশিষ্ট ফ্রেন্ডস কো-অপারেটিভ সোসাইটির ২০১৩-২০১৪ সালের জন্য নির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটিতে আরো রয়েছেন, সহসভাপতি একরামুল হক পর্বত, আবুল কালাম আজাদ, ফিরোজ রশীদ টুটুল, নাজমুল আহমান তপু, মঈনুল ইসলাম। সাধারণ সম্পাদক আতিকুল হক সন্টু, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম মিল্টন, এটিএম সাইফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাংবাদিক রিফাত রহমান, জণকল্যাণ ও সমাজসেবা সম্পাদক হামিদুল ইসলাম সেন্টু, দফতর সম্পাদক ডা. রমজান আলী, নির্বাহী সদস্য ডা. মেহবুবুল কাদির, ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন, তৌফিক এলাহী বাবু, একরামুল হক মালিক, শ্রী সুশিল কুমার, জহুরুল ইসলাম, মনজ কুমার আগরওয়ালা, শঙ্কর কুমার দে, কামাল হোসেন ও শফিকুর রহমান রিন্টু। শেষে এক প্রীতিভোজের আয়োজন করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা ছয়ঘরিয়ায় ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহষ্পতিবার দিনব্যাপি অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিলো বিভিন্ন প্রতিযোগিতার। প্রতিযোগিতা শেষে পুরস্কার বিতরণ। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার আপিল উদ্দীনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী সামছুল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড.মিজানুর রহমান, পল্লী প্রগতি সংস্থা নির্বাহী পরিচালক ইলিয়াস হোসেন ও বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী শাহীন আলম।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুর গাংনীর মানুষের ঈদের আনন্দ আরো বাড়িয়ে দিয়েছে ঐতিহ্যবাহী পালাগানের অনুষ্ঠান। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গাংনী ট্রাক টার্মিনালে শ্রমিক নেতা মনিরুল ইসলাম মনি ও ট্রাক মালিক সমিতি আয়োজন করে ঈদ পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। এ অনুষ্ঠানে পালাগান পরিবেশন করেন বাউল শিল্পী আক্কাছ দেওয়ান ও লিপি সরকার। শুধু পালাগানই নয় আরেক ঐতিহ্যবাহী বিচ্ছেদ গান পরিবেশন করেন স্বর্ণালী আক্তার। পাশাপাশি বাউল সম্রাট লালনের গান পরিবেশন করে দর্শকদের বাড়তি আনন্দ দিয়েছেন বাউল শিল্পী আব্দুর রাজ্জাক। শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষ এ অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

আমঝুপি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, গত বৃহস্পিতিবার মেহেরপুর জেলা জামায়াতে ইসলামীর আয়োজনে রাজনগর ঈদগা মাঠে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়। জেলা জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মো. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জামায়াতের আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মো. আব্দুল মতিন। সভায় কর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন জেলা নায়েবে আমির সিরাজুল ইসলাম, ইসলামী ছাত্রশিবিরের জেলা সভাপতি মো. সাইফুল ইসলাম, উপজেলা আমির কাজী রুহুল আমীন, আমদহ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন ও মাও. খানজাহান আলী। বক্তাগণ বর্তমান সরকারের বিভিন্ন নীতিবাচক কর্মকাণ্ডের সমালোচনা  তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *