দামুড়হুদায় শ্বশুর ও শ্যালকের লাঠির আঘাতে জামাইসহ দু প্রতিবেশী রক্তাক্ত জখম

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদায় দ্বিতীয় বিয়ে করায় শ্বশুর ও শ্যালকের লাঠির আঘাতে জামাইসহ দু প্রতিবেশী রক্তাক্ত জখম হয়েছে। আহতদের চুয়াডাঙ্গা জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় জখম প্রতিবেশী আশাদুল দুজনের বিরুদ্ধে দামুড়হুদা থানায় মামলা করেছে। গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার বিষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের জয়নালের ছেলে আনিসুরের (শহিদুল) সাথে প্রায় ১২ বছর আগে কলাবাড়ি গ্রামের সাজ্জাদ মিস্ত্রির মেয়ে হাসিয়ারার বিয়ে হয়। তাদের পরিবারে দুটি সন্তান আছে। আনিসুর ওরফে শহিদুল সম্প্রতি জেলা সদরের গুপিনাথপুর গ্রামে কাকলীর সাথে দ্বিতীয় বিয়ে করে। এরই জের ধরে সংসারে প্রথম স্ত্রীর সাথে তার মনোমালিন্য চলছিলো। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শহিদুলকে স্ত্রী হাসিয়ারা তার পিতা, মা ও ভাই লেলিনকে সাথে নিয়ে স্বামীর বাড়ি বিষ্ণুপুর গ্রামে আসে এবং কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে স্ত্রী ও শাশুড়ী শহিদুলকে চেপে ধরে এবং শ্বশুর ও শ্যালক তাকে বেদম মারপিট করতে থাকে। প্রতিবেশী হজোর ছেলে আশাদুল ও জালালের ছেলে হাফিজুর মারামারি ঠেকাতে এলে তাদেরকেও মেরে মাথা ফাটিয়ে সটকে পড়ে। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। এ বিষয়ে শ্বশুর শহিদুল ও শ্যালক লেলিনকে আসামি করে দামুড়হুদা থানায় মামলা করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *