দামুড়হুদায় মোটরসাইকেল চুরি করে পালানোর সময় চোর সিন্ডিকেটের দু সদস্য আটক : গY‡avjvB শেষে পুলিশে সোপর্দ

দামুড়হুদা/জুড়ানপুর প্রতিনিধি: দামুড়হুদার বিষ্ণুপুর থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে পালিয়ে যাওয়ার সময় শামিম (২০) ও শাহিন (১৯) নামের দু মোটরসাইকেল চোরকে তাড়িয়ে ধরে গণধোলায় শেষে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনগণ। জনতার হাতে আটক শামিম ঝিনাইদহ জেলার চোরকোল গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে এবং শাহিন চুয়াডাঙ্গা সদরের গোবরগাড়া গ্রামের মৃত জালালের ছেলে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। ওই দু মোটরসাইকেল চোর গত পনেরদিন আগে দামুড়হুদার চিৎলা গ্রামের খোকনের একটি ডিসকভারি মোটরসাইকেল বাড়ির সামনে থেকে দিনে দুপুরে চুরি করে পালিয়ে যায়।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার জুড়ানপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত জামাল মাস্টারের ছেলে বিষ্ণুপুর ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান গতকাল শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে ছোট ভাই স্কুলশিক্ষক রেজানুর রহমানের ১শ সিসি ডিসকভার মোটরসাইকেলটি নিয়ে গ্রামের ভেড়ির মাঠে বেগুনক্ষেত দেখতে যায়। তিনি মোটরসাইকেলটি রাস্তার ওপর রেখে বেগুনক্ষেতে যাওয়ার পরপরই  আন্ত:জেলা মোটরসাইকেলচোর সিন্ডিকেটের দু সদস্য শামীম এবং শাহীন মোটরসাইকেলটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কিন্ত বিধিবাম। কিছুদুর যেতে না যেতেই ফুরিয়ে যায় মোটরসাইকেলের তেল। অবস্থা বেগতিক দেখে তারা মোটরসাইকেলটি বিষ্ণুপুর মাঠপাড়াস্থ সড়কের ধারে ফেলে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় স্থানীয় জনগণ তাদের পিছু ধাওয়া করে এবং ইব্রাহীমপুর মাঠের মধ্য থেকে তাদেরকে তাড়িয়ে ধরে গণধোলায় দেয়। পরে তাদেরকে তুলে দেয়া হয় পুলিশের হাতে। দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেশকিছু নাম পাওয়া গেছে। মোটরসাইকেলটি থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। কয়েকদিন আগে দামুড়হুদার চিৎলা গ্রামের খোকনের বাড়ির সামনে থেকে চুরি হয়ে যাওয়া একটি ডিসকভারি মোটরসাইকেল এরাই চুরি করেছে কি-না সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.