দামুড়হুদার প্রাথমিকে প্রধান শিক্ষকের ৪০ পদ শূন্য

 

কুড়ুলগাছি প্রতিনিধি: দামুড়হুদা উপজেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪০টি প্রধান শিক্ষকের পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে। এসব বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষকরা ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া ১টি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। ফলে এসব বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রমে বিঘ্ন ঘটছে। উপজেলায় ১১৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ৪০টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক না থাকায় সহকারী শিক্ষকরা দায়িত্ব পালন করছেন। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকরা দাপ্তরিক কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় শিক্ষক সঙ্কটে পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

ভারপ্রাপ্ত শিক্ষকরা জানান, তারা বেলা ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিদ্যালয়ে অবস্থান করেন। প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ৫-৬ ঘণ্টা ক্লাস নেন। এছাড়াও ভোটগ্রহণ, ভোটার তালিকা প্রণয়ন, শিশু জরিপ, আদশুমারি ও অফিসিয়াল নানা কাজ করতে হয়। নির্ধারিত ক্লাস নেয়ার পাশাপাশি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হয়। যেদিন দাপ্তরিক কাজে শিক্ষা অফিসে যেতে হয়, সেদিন ক্লাস নেয়া সম্ভব হয় না। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাকি সালাম জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। তবে বর্তমানে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উর্ত্তীণ হওয়ায় আমাদের হাতে আর নেই। এটা সম্পূর্ণ পিএসসি নিয়ন্ত্রণ করছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *