দামুড়হুদার ডুগডুগির জুয়ার আসর থেকে ৩ জুয়াড়িকে নিজ হাতে ধরলেন ইউএনও

 

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: জুয়ার আসরে হানা দিয়ে ৩ জুয়াড়িকে হাতেনাতে আটক করেছেন দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফরিদুর রহমান। পরে আটক ওই ৩ জুয়াড়ির বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে প্রত্যেকের ১ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন তিনি। দণ্ডপ্রাপ্ত ৩ জুয়াড়িকে গতকালই জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। দণ্ডিরা হলেন, চুয়াডাঙ্গা সবুজপাড়ার মোহাম্মদ আলীর ছেলে এসআর আহম্মেদ এছার (৪৫), চুয়াডাঙ্গা সিঅ্যান্ডবি পাড়ার আবুল কাশেমের ছেলে রকিব (৩০) ও দর্শনা হল্টস্টেশন পাড়ার বজলুর রহমানের ছেলে আতিয়ার রহমান (৪০)। গতকাল রোববার বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার ডুগডুগি ইউনিয়ন পরিষদের পেছনে আম বাগান থেকে ওই ৩ জুয়াড়িকে আটক করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার কাজে সহযোগিতা করেন সিএ জহিরুল ইসলাম। এদিকে কোনো পুলিশ ছাড়াই জুয়ার আসরে হানা দিয়ে ৩ জনকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করায় ইউএনওকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

তারা নাম প্রকাশ না করার শর্তে মাথাভাঙ্গাকে জানান, পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এলাকার কিছু লোকজনের সহযোগিতায় ডুগডুগি ইউনিয়ন পরিষদের পূর্বদিকের মাঠে দীর্ঘদিন ধরে বড় ধরনের জুয়ার আসর বসতো। এখানে লাখ লাখ টাকার খেলা চলতো। জুয়াড়িরা প্রভাবশালী হওয়ায় এ পর্যন্ত ওখানে কেউ হানা দিতে সাহস দেখায়নি।

এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফরিদুর রহমান জানান, ওখানে বড় ধরনের জুয়া খেলা হয়, এ কথা জানার পর গতকাল বিকেলে উপজেলা আইসিটি টেকনিশিয়ান খাইরুল কবির দিনারকে সাথে নিয়ে ডুগডুগি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে যাই। ওখানে যাওয়ার পর শুনি যেখানে খেলা হচ্ছে সেখানে গাড়ি যাবে না। ওখানে এক মোটরসাইকেলে ৩ জন চেপে ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। আমি যে ওদের আটক করতে এসেছি ওরা প্রথমে তা বুঝতে পারেনি। তাই ওদেরকে ধরা সহজ হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *