দামুড়হুদার ছুটিপুরে ৬০ বছরের পিলার কাজে লাগিয়ে বিস্ময়কর ব্রীজ নির্মাণ

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার নতিপোতা ইউনিয়নের ছুটিপুরে ধাপারি খালে আরসিসিসি গার্ডার ব্রিজটি ৬০ বছর পুরোনো ৪টি পিলারের ওপর তৈরি করা হচ্ছে। বিস্ময়কর ব্রিজটি নির্মাণ করছে স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদপ্তর-এলজিইডি এবং দীর্ঘমেয়াদী গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প। ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রিজটি গত ডিসেম্বর মাসে নির্মাণ কাজ শুরু হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দামুড়হুদা উপজেলার ছুটিপুরে ২৪ দমিক ৯০ মিটার ব্রিজটির নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়ে ৩২ লাখ ১৩ হাজার ৩৮৭ টাকা। আগামী ডিসেম্বর মাসে ব্রিজটির নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এশিয়ান উন্নয়ন ব্যাংক-এডিবি, জার্মানি দাতা সংস্থা এবং বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে ব্রিজটি নির্মাণ করা হচ্ছে। চুয়াডাঙ্গা হকপাড়ার মেসার্স এমএম এন্টারপ্রাইজ স্থানীয় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজটি করছে। দামুড়হুদা এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী নির্মাণ কাজটির তদারকি করছেন। প্রকল্পে শতকরা ৩০ ভাগ নারী শ্রমিক রয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গা জজকোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ছুটিপুরের সন্তান আশরাফুল ইসলাম খোকন জানান, প্রায় ৬০ বছর আগে ছুটিপুরের ধাপারী খালের ওপর তার পিতা আকবর আলী বিশ্বাস ও হাজি আব্দুর রহিম মল্লিক ব্রিজটি নির্মাণ করেন। ব্রিজের পিলারগুলো এখনো ভালো রয়েছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঠিকাদার শামসুজ্জোহা মল্লিক হাসু জানান, ব্রিজের ৮০ ভাগ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। গার্ডার ওয়াল ও রঙের কাজ বাকি রয়েছে। শিগগির কাজ শেষ হবে।

এলজিইডির ভারপ্রাপ্ত দামুড়হুদা উপজেলা প্রকৌশলী নওশাদউজ্জামান জানান, ব্রিজটির পিলার এখনও মজবুত থাকায় পিলারগুলো রেখেই নির্মাণ কাজ হচ্ছে। দাতা সংস্থা এসব জেনেই অর্থ বরাদ্দ করেছে। ব্রিজটি নির্মাণ হলে এলাকার মানুষ উপকৃত হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *