দর্শনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম প্রতারকচক্রের ফাঁদে : গর্চ্চা গেলো সাড়ে ৬ লাখ টাকা

 

দর্শনা অফিস: অতিলোভে তাতি নষ্ট বহুল প্রচলিত এ প্রবাদবাক্যের মতো দশা হলো দর্শনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি গোলাম কিবরিয়ার। প্রতারকচক্রের মিষ্টি কথায় ১২ লাখ সৌদি রিয়াল পাওয়ার আশায় গর্চ্চা দিলেন সাড়ে ৬ লাখ টাকা।

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে প্রতারকচক্রের অজ্ঞাত দুজন সদস্য দর্শনা রেলবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাজি মুফতি গোলাম কিবরিয়াকে জানান, তাদের কাছে সৌদি আরবের ১২ লাখ রিয়াল রয়েছে। প্রতি ১ রিয়ালের মূল্য ২১ টাকার বেশি। সে হিসেব অনুযায়ী ৫০ হাজার রিয়াল মাত্র ৬ লাখ টাকায় বিক্রির প্রস্তাব দিলে প্রতারকচক্রের ফাদে পা দেন গোলাম কিবরিয়া। রাতারাতি মোটা অংকের টাকা লাভের আশায় কোনো প্রকার খোঁজখবর না নিয়েই প্রতারকচক্রের সদস্যদের হাতে সাড়ে ৬ লাখ টাকা তুলে দেন গোলাম কিবরিয়া। চুয়াডাঙ্গা হাসপাতাল রোর্ডের পাসপোর্ট অফিসের সামনে ৬ লাখ ৪০ হাজার টাকার বিনিময়ে গামছায় বাঁধা অবস্থায় ৫০ হাজার রিয়াল তুলে দেয় গোলাম কিবরিয়ার হাতে। রিয়াল পেয়ে আনন্দে দিশেহারা মুফতি গোলাম কিবরিয়া গামছার গিট না খুলেই তড়িৎ গতিতে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে বাড়ি ফিরেন। বাড়ি ফিরে গামছার গিট খুলে দেখেন গোলাম কিবরিয়ার আশায় গুঁড়েবালি। প্রতারকরা রিয়ালের পরিবর্তে গামছায় বেঁধে শাদা কাগজের বান্ডিল দেয়। ঘটনাটি দর্শনায় বেশ কয়েকদিন ধরে আলোচনা সমলোচনার ঝড় তোলে। অনেকেই বলেন, দর্শনা কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমামের মতো আলেম ব্যাক্তির লোভনীয় কর্মকাণ্ড রীতিমতো আলেম সমাজকে কলুষিত করেছে। তাই ঘটনার সঠিক তদন্তপূর্বক অভিযুক্ত আলেমের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দর্শনা পৌর ইমাম সমিতির কাছে দাবি তুলেছে দর্শনাবাসী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *