তাপসের বিষয়ে সরকারের মত জানতে চান হাইকোর্ট

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূলের সংসদ সদস্য ও অভিনেতা তাপস পালের বিরুদ্ধেকোলকাতা হাইকোর্টে করা মামলার শুনানি চলছে। গতকাল মঙ্গলবার ও গতকাল বুধবারমামলার শুনানি হয় বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তর আদালতে।শুনানিতে বিচারপতিদীপঙ্কর দত্ত বলেছেন, যে ভাষায় একজন সাংসদ কথা বলেছেন, তাতে তিনি লজ্জিত।এরপরই তিনি প্রশ্ন তোলেন, এ ব্যাপারে কি প্রশাসনের কিছু করার নেই?প্রশাসনযেভাবে এ ঘটনায় নির্লিপ্ত রয়েছে, তাতে তিনি বিস্ময়ও প্রকাশ করেন। তিনিসরকারি আইনজীবীর কাছে জানতে চান, ‘রাজ্য সরকার তাপস পালের মন্তব্যকে সমর্থনকরে কি না?’ এই বিচারপতি নির্দিষ্টভাবে রাজ্য সরকারের মতামতও জানতে চান।মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন আগামী সপ্তাহে।সম্প্রতিপশ্চিমবঙ্গের নদীয়ার চৌমাহা গ্রামে এক দলীয় সমাবেশে তাপস পাল বলেন, ‘আমিচন্দননগরের ছেলে। অনেক রংবাজি করেছি। আমি প্রচুর মাস্তানি করেছি। আমি পকেটেমাল নিয়ে ঘুরি। আমি নিজে রিভলবার দিয়ে গুলি করে চলে যাব। সিপিএমকে গুলিকরে মারবো। আমার মা, বোন, বাবা, বাচ্চা কারোর গায়ে যদি হাত পড়ে, আমি ছেড়েকথা বলবো না। বাড়ি বাড়ি ঢুকে ছেলে পাঠিয়ে সিপিএমের মেয়েদের রেপ করে দেব।তৃণমূলের কারও গায়ে যদি কোনো সিপিএম হাত দেয়, তবে তাদের গোষ্ঠী শেষ করেদেব। বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেব।’ এই একই ধরনের বক্তব্য তিনি একই দিন এই জেলারআরও তিনটি স্থানে দেন।তাপস পালের কুরুচিকর ওই মন্তব্যের পর ২ জুলাই কোলকাতা হাইকোর্টেজনস্বার্থে মামলা করেন কোলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী শমিত সান্যাল। সেই মামলারপ্রথম শুনানি হয় গতকাল। আর আজ দ্বিতীয় দিনের শুনানি হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *