তাপসপালের বিতর্কিত মন্তব্যে ক্ষমা চাইলেন তার স্ত্রী

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বিরোধীদলের লোকজনের বাড়ি ঢুকে ধর্ষণের হুমকি সংক্রান্ত পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূলসংসদ সদস্য তাপস পালের বিতর্কিত মন্তব্যের একদিন পরেই ক্ষমা চাইলেন তার স্ত্রীনন্দিনী পাল। গতকাল মঙ্গলবার নন্দিনী বলেন, তাপস পালের বক্তব্যের জন্য আমিক্ষমাপ্রার্থী, তবে এ ঘটনার আরেকটি দিক রয়েছে যা কেউ জানে না। ওইমন্তব্যের জন্যে আমি ক্ষমা চাইছি।নন্দিনী পাল আরো অবশ্যই এই ধরনেরমন্তব্যের পক্ষে কথা বলা ঠিক হবে না। কিন্তু এটি সত্যি যে এই গল্পের আরেকটিঅংশ রয়েছে। সেই অজানা কারণটিই তাপসকে এই কথা বলতে বাধ্য করেছে। সম্পূর্ণঘটনার সূত্রপাত আরও অনেক আগেই। এরপরেও তাপসের পক্ষ থেকে আমি সকলের কাছেক্ষমা চাইছি।সোমবার ভারতীয় টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষতকারে তাপস পালবলেন, আমি চন্দনগরের ছেলে। অনেক রংবাজি করেছি। যদি এখানে কোনো সিপিএমেরনেতা উপস্থিত থাকেন তাহলে শুনে রাখুন, কোনো তৃণমূল কর্মীর গায়ে হাত দিলেগুষ্ঠিশুদ্ধ উড়িয়ে দেবো। শুধু তাই নয়, বাড়ি বাড়ি ঢুকে ছেলে পাঠিয়ে ধর্ষণেরহুমকি দিয়েছেন তিনি। তবে তাপস পাল ধর্ষণের কথা অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, আমি ‘রেপ’ নয়, ‘রেইড’ বলেছি।তাপসের এই আপত্তিকর মন্তব্যের প্রতিবাদজানিয়েছে সিপিএম। সিপিএমের দাবি লোকসভা স্পিকারের স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হয়ে এইধরনের আপত্তিকর মন্তব্যের জন্যে তাপস পালকে বহিস্কার করা উচিত। এদিকেতৃণমূলের পক্ষ থেকে তাপস পালকে ৪৮ ঘন্টার সময় বেধে দেয়া হয়। এই সময়েরমধ্যে আপত্তিকর মন্তব্য তুলে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয় তাপসকে। এছাড়া দেশটিরন্যাশনাল কমিশন ফর উইমেন তৃণমূল সংসদ সদস্যের এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *