ট্রেনেই কাটা পড়লেন তাজুলের পিতা

স্টাফ রিপোর্টার: দুর্ঘটনার হাত থেকে কয়েকশ যাত্রীসহ ট্রেনকে রক্ষাকারী চাঁদপুরের সেই তাজুলের পিতা মারা গেলেন ট্রেনে কাটা পড়েই। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় শাহরাস্তি উপজেলার উপলতা গ্রামের মৌতাবাড়ি এলাকায় একটি দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান মহব্বত আলী (৯৫)। ওই স্থানেই গত ২৭ নভেম্বর অবরোধকারীরা ট্রেন লাইন তুলে ফেলেছিলো। ওই সময় তরিৎ ব্যবস্থা নিয়ে অন্তত পাঁচশ যাত্রীসহ মেঘনা এক্সপ্রেসকে দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন তাজুল ইসলাম। মেহার রেল স্টেশনের মাস্টার গোলাম মোস্তফা জানান, চাঁদপুর থেকে চট্টগ্রামগামী মেঘনা আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে নাশকতা থেকে রক্ষার অংশ হিসেবে অগ্রগামী একটি ইঞ্জিন চাঁদপুর-লাকসাম রেলপথের মৌতাবাড়ি এলাকা (তাজুলের বাড়ির সামনে) অতিক্রম করছিলো। এ সময় ওই ইঞ্জিনের নিচে পড়ে তাজুলের পিতা মারা যান, বলেন মোস্তফা। তাজুলের মেয়েজামাই জাকির হোসেন জানান, সকালে রেললাইনের পথ ধরে দুধ আনতে যাচ্ছিলেন মহব্বত আলী। এ সময় ওই ইঞ্জিনের নিচে কাটা পড়লে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। এ সময় সাথে থাকা তাজুল এ দৃশ্য দেখে সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেন। তাজুল জানান, বাবা চোখে খুব বেশি একটা দেখতেন না। এমনকি কানেও শুনতে পেতেন না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *