ঝিনাইদহে মহিলা পুলিশের গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার অপচেষ্টা

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে সাথী খাতুন (১৯) নামে এক মহিলা কনস্টেবল আত্মহত্যার অপচেষ্টা করেছেন। গতকাল সোমবার তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পুশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ হাসপাতাল পরিদর্শন করেন।

সাংবাদিকরা হাসপাতালে গিয়ে জানতে পারেন, সাথী খাতুন গলায় দড়ি দিয়ে ঝিনাইদহ পুলিশ লাইনসে আত্মহত্যার অপচেষ্টা করেন। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ফাল্গুনি রাণী সাহা জানান, সোমবার বেলা পৌনে ২টার দিকে সাথী খাতুনকে নিয়ে মোহনা নামে এক মহিলা কনস্টেবল হাসপাতালে আসেন। তার অবস্থা আশঙ্কা মুক্ত বলা যাচ্ছে না। ৭২ ঘণ্টা পর বলা যাবে। তবে বিকেল ৫টার দিকে এএসআই ইসমাইল হোসেনসহ বেশ কয়েকজন নারী পুলিশ সাথীকে ইজিবাইকে পুলিশ লাইনস হাসপাতালে নিয়ে যান। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ আরআই অফিসে যোগাযোগ করা হলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে কেও কথা বলতে রাজি হননি। এমনকি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও ফোন ধরেননি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.