ঝিনাইদহে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে তার শাহদৎ বার্ষিকী পালিত হয়। এ উপলক্ষে মহেশপুর উপজেলা প্রশাসন বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করে। এর মধ্যে ছিলো আলোচনা সভা, স্মৃতি চারণ ও দোয়া মাহফিল। ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকীর এ দিনে ৩৪ বিঘা জমির ওপর নির্মিত বীরশ্রেষ্ট হামিদুর রহমান ইকোপার্কের উদ্বোধন করা হয়।

গতকাল সকাল ১১টার দিকে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমান কলেজ মাঠে জেলা প্রশাসক মাহবুব আলম তালুকদারের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশাফুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা ড. আব্দুল মালেক গাজী, বীরশ্রেষ্ঠের পরিবারের সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। এ সময় বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমানের জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। এর আগে অতিথিরা শহীদের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। ১৯৭১ সালের ২৮ অক্টোবর মৌলভীবাজার জেলার ধলাই সীমান্তে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর সাথে সম্মুখ যুদ্ধে তিনি শহীদ হন।

এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো হামিদুর রহমান যে গ্রামটিতে বেড়ে উঠছে সেই খোর্দ্দখালিশপুর গ্রামটির নামকরণ করা হোক হামিদনগর। কিন্তু আজও নাম করণ করা হয়নি। বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমানের জন্ম ১৯৪৫ সালে ভারতের নদীয়া জেলার ডুমুরিয়া গ্রামে। ১৯৭১ সালের ২৮ অক্টোবর মৌলভীবাজার জেলার সীমান্তে ধলাই পাক সেনা ঘাটি আক্রমণ করে মুক্তিবাহিনী। সেই যুদ্ধে অসীম সাহসিকতা ও রণকৌশল দেখান তিনি। এ সময় পাক সেনাদের গুলিতে তিনি শহীদ হন। ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের অন্তর্গত আমবাসা নামক স্থানে একটি মসজিদের পাশে সমাহিত করা হয়। সুদীর্ঘ ৩৬ বছর পর ২০০৭ সালের ১১ ডিসেম্বর হামিদুরের দেহাবশেষ বাংলাদেশে নিয়ে এসে ঢাকার শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সমাহিত করে বাংলাদেশ সরকার।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *