ঝিনাইদহে জমিব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ১০ নম্বর নামক স্থানে আরিফ হোসেন (৪৫) নামের এক জমিব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। আরিফ হোসেন সদর উপজেলার পোড়াহাটি ইউনিয়নের ধানহাড়িয়া চুয়াডাঙ্গা গ্রামের মৃত মহিউদ্দিন মণ্ডলের ছেলে। বর্তমানে ওই ব্যবসায়ী ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় ছোট ভাই আমির হোসেন বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামি করে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার এজাহারে জানা যায়, জমি বেচা কেনাকে কেন্দ্র করে একই এলাকার খলিলের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো আরিফের। মধুপুর বাজার থেকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিলেন আরিফ হোসেন। পথিমধ্যে ১০ নম্বর নামক স্থানে পৌঁছুলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা শওকত, রাজ্জাক ও খলিল তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে মারধর শুরু করে। এক পর্যায়ে আরিফ হোসেন মোটরসাইকেল থেকে রাস্তায় পড়ে গেলে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। আরিফের আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে তারা আরিফের নিকট থাকা নগদ টাকা, ব্যাংকের চেক ও মোটরসাইকেলের কাগপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়। সেখান থেকে আরিফকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার বলেন, আরিফ হোসেন মারধরের ঘটনায় আমিরুল ইসলাম নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

 

 

 

Leave a comment

Your email address will not be published.