ঝিনাইদহে কৃষি জমি থেকে মাটি বিক্রি বন্ধ করলেন অ্যাসিল্যান্ড

 

ডাকবাংলা প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাধুহাটি গ্রামের নীল সবুজ মাঠ এখন পুকুর ও খানা খন্দে ভরা। চাষযোগ্য জমি থেকে ইটভাটা মালিকদের কাছে মাটি বিক্রি করায় এক সময়ের সবুজে ঘেরা মাঠটি এখন খাঁ খাঁ করছে। অভিযোগ উঠেছে, কৃষি জমি সংরক্ষণ আইনের তোয়াক্কা না করে আবাদি জমি থেকে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ায় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার অ্যাসিল্যান্ড শুভ্রদাস ঘটনাস্থান পরিদর্শন করে মাটি কাটা বন্ধ করে দিয়েছেন। তিনি এ সময় কৃষকের বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনে তা সমাধানের আশ্বাস দেন। অ্যাসিল্যান্ড শুভ্রদাস জমির মালিক মহসিনকে সাফ জানিয়ে দেন কৃষি জমির শ্রেণি পরিবর্তন করতে হলে অনুমোদন লাগবে। অনুমোদন না নিয়ে মাটিকাটা সম্পূর্ণ অন্যায়। এ বিষয়ে সাংবাদিকদের জানান, এই মাঠের সব জমি কৃষি শ্রেণির আওতাভুক্ত। মৎস্যচাষ কৃষির একটি শাখা হলেও যত্রতত্র পুকুর কাটা বা জমি থেকে মাটি বিক্রি করা পরিবেশ বিপর্যয়ের কারণ হতে পারে। সাধুহাটি ইউপি চেয়ারম্যান কাজী নাজির উদ্দীন বলেন, আবাদী জমি থেকে মহসিন নামে এক ব্যক্তি মাটি বিক্রি করে আশপাশের কৃষকদের হুমকির মধ্যে ফেলেছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *