ঝিনাইদহের শৈলকুপায় প্রবাসীর স্ত্রী সন্তানসহ নিখোঁজ

ঝিনাইদহ অফিস: ১০ মাসের শিশু সন্তানসহ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রী নিখোঁজের ঘটনা ঘটেছে। নিখোঁজ মিতুর পরিবার ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন অনেক খোঁজাখুজির পর তাকে না পেয়ে অপহরণ করা হয়েছে বলে দাবি করেছে। যশোরে পিতার বাড়ি থেকে ঝিনাইদহের শৈলকুপায় শ্বশুরবাড়িতে ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।

পারিবারিকসূত্রে জানা যায়, শৈলকুপা উপজেলার কবিরপুর নতুন ব্রিজ সংলগ্ন আয়ুব হোসেনের ছেলে নীরব হোসেনের (২৬) সাথে যশোর জেলার কোতয়ালী থানার কৃষ্ণবাটী পুলেরহাট এলাকার শাহাজ উদ্দীন ব্যাপারির মেয়ে কানিজ ফাতেমা মিতুর (২০) বিয়ে হয়। দু বছরের সাংসরিক জীবনে তাদের তামিন হোসেন অরন্য নামে ১০ মাস বয়সী একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার পিতা বাড়ি যশোর থেকে সন্তানসহ শ্বশুরবাড়ি শৈলকুপার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় নীরবের স্ত্রী মিতু। কিন্তু সে আর শ্বশুরবাড়িতে ফিরে আসেনি। ওই দিন থেকেই তার মোবাইলফোন বন্ধ পাওয়া যায়। শিশুসন্তানসহ নিখোঁজ স্ত্রী মিতুর কাছে বেশ কিছু সোনার গয়না, নগদ টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র ছিলো বলে তার পরিবার জানিয়েছে। এ বিষয়ে মিতুর মা মোমেনা খাতুন যশোর কোতয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মিতু প্রায়ই গোপনে যশোরের এক ব্যক্তির সাথে ফোনে দীর্ঘ সময় আলাপ করতো। মিতুর সাথে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির পরকীয়া প্রেম থাকতে পারে বলে আশপাশের লোকজন জানিয়েছে। মিতু নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির ফোন বন্ধ আছে। যে কারণে মিতু পরকীয়ার টানে পাড়ি জমাতে পারে বলে ধারণা করছে তারা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *