ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে বলরামপুরে নতুন বিদ্যুত সংযোগ দিতে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ

 

কালীগঞ্জ প্রতিনিধি: পদে পদে বখশিস ও অতিরিক্ত টাকা দিয়ে নতুন বিদ্যুত সংযোগ পেলেন ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার বলরামপুর গ্রামের ৭৫টি পরিবার। পল্লী বিদ্যুত সমিতির প্রাথমিক সদস্য হওয়া থেকে শুরু করে ঘরে কানেকশন পর্যন্ত তাদেরকে অতিরিক্ত টাকা ও বখশিস গুনতে হয়েছে।

গ্রামের শরিফুল ইসলাম, মশিয়ার রহমান ও সদর মীর অভিযোগ করে বলেন, প্রাথমিক সদস্য ফি ও মিটার জমা দেয়ার জন্য কালীগঞ্জ পল্লী বিদ্যুত অফিসে গ্রামের ইসাহক আলীর কাছে জমা দিতে বলা হয়। পরে সদস্য ফি ২০ টাকা ও মিটার বাবদ ৬শ’ টাকা নির্ধারণ থাকলেও আমাদের কাছ থেকে যথাক্রমে ১৪০ টাকা ও ৮শ’ টাকা নেয়া হয়েছ।’

অভিযোগ পাওয়া গেছে, গ্রামের মোট ৭৫ জন গ্রাহকের কাছ থেকে সদস্য ফি বাবদ ইছাহক আলী জমা নিয়েছেন সাড়ে ১০ হাজার টাকা। তবে তিনি অফিসে জমা দিয়েছেন মাত্র দেড় হাজার টাকা। এছাড়া মিটার ফি বাবদ ৬০ হাজার টাকা আদায় করে জমা দিয়েছেন সাড়ে ৪ হাজার টাকা। এছাড়াও ইছাহক আলী আরও ১০/১২ জনের কাছ থেকে পুরোনো লাইনের আওতায় মিটার দেয়ার জন্য ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা নিয়েছেন। তবে তারা এখনও সংযোগ পাননি।

আরও অভিযোগ আছে, বিদ্যুত কর্মচারীরা ঘরে মিটার বসানোর জন্য প্রত্যেকের কাছ থেকে সাড়ে ৩শ’ টাকা, মেন লাইন থেকে মিটারে তার টানার জন্য ৫০/১০০ টাকা এবং ঘরে সংযোগ দেয়ার জন্য নিয়েছেন ১শ’ টাকা করে। এ বিষয়ে কালীগঞ্জ পল্লী বিদ্যুত সমিতির সহকারী মহাব্যবস্থাপক সূর্য নারায়ণ ভৌমিক বলেন, এসব বিষয়ে এখনও কেউ অভিযোগ করেননি। কেউ লিখিত অভিযোগ করলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *