জীবননগর হাসাদাহ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জের বিরুদ্ধে গরুচোর ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ

 

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর উপজেলার হাসাদাহ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মতিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে গরুচোর ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হাসাদাহ এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। দাবি উঠেছে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের।

অভিযোগে জানা যায়, জীবননগর উপজেলার হরিহরনগর গ্রামের জুয়েল (২২) ওরফে কুয়েত গত শুক্রবার রাতে হাসাদাহ জাফরাবাজপাড়ার মান্দার আলীর ছেলে বিশারত আলীর বাড়িতে গরু চুরি করতে যায়। গরু চুরির পূর্ব মুহূর্তে সে হাতেনাতে ধরা পড়ে। ধরা পড়ার পর সে জানায়, এ চুরির আগে সে বকুণ্ডিয়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের বাড়িতে অবস্থান নেয় এবং রাতের খাবার খেয়ে সে চুরির প্রস্তুতি নিয়েছিলো। আটক জুয়েলকে রাতেই হাসাদাহ ফাঁড়িতে সোপর্দ করা হয়। অভিযোগ ফাঁড়িতে সোপর্দকৃত গরুচোরের বিরুদ্ধে আইনগত কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করে ফাঁড়ি ইনচার্জ বিশেষ সুবিধা নিয়ে শনিবার তাকে ছেড়ে দেয়। এর আগে তিনি বকুণ্ডিয়ার মইদুলের নিকট থেকেও বিশেষ সুবিধা নিয়ে তাকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করেন। আর এ কাজে হাসাদাহ ইউনিয়ন পরিষদের কয়েকজন সদস্য আইসির সাথে বিশেষ সখ্যতাকে কাজে লাগিয়েছে বলে অভিযোগ। চোর ছেড়ে দেয়ার এ ঘটনায় হাসাদাহ এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রকিব খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ঘটনা তিনি শুনেছেন। তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রমাণ পেলে তার বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.