জীবননগর শ্রীরামপুরে ৫ লাখ টাকাসহ অপহৃত ফরিদার হদিস মেলেনি

 

জীবননগর ব্যুরো: চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রাম থেকে ৫ লাখ টাকাসহ অপহৃত ফরিদা পারভীনকে (৩৮) গতকাল বুধবার পর্যন্ত উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। গত মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে মাইক্রোবাসযোগে একদল দুর্বৃত্ত তার গ্রামের বাড়ি শ্রীরামপুর এসে টাকার ব্যাগসহ তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশের ধারণা এটা হয়তো সাজানো নাটক।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, জীবননগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে আব্দুল গনি ঢাকায় আদমব্যবসা করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। স্ত্রী ফরিদা পারভীনও ঢাকার একটি বেসরকারি ফার্মে কর্মরত। আব্দুল গনি আদমব্যবসা করে রাতারাতি ফুলে ফেঁপে ওঠে ও এলাকায় আলিসান বাড়ি নির্মাণসহ ব্যাপক হারে জমি কেনা শুরু করে। জমি কেনার জন্য মঙ্গলবার স্ত্রী ফরিদা ৫ লাখ ১৫ হাজার টাকা নিয়ে ঢাকা থেকে রওনা হন। রাতে তিনি খালিশপুর বাজারে এসে নামেন এবং শ্বশুর আব্দুল হামিদের সাথে করিমনযোগে বাড়ি শ্রীরামপুর পৌঁছান। এর কিছুক্ষণ পর রাত আনুমানিক ৯টার দিকে অস্ত্রধারী একদল দুর্বৃত্ত শাদা মাইক্রোবাসযোগে তার বাড়িতে আসে এবং অস্ত্র ঠেকিয়ে ভয় দেখিয়ে টাকার ব্যাগসহ ফরিদাকে অপহরণ করে কালীগঞ্জ সড়ক হয়ে পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ করা হয়েছে। স্বামীর আদমব্যবসাকে কেন্দ্র করে ফরিদাকে অপহরণ করা হতে পারে বলে এলাকাবাসী ধারণা করছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *