জীবননগর কাশিপুরের কাঁকনের বিরুদ্ধ চাকুরি দেয়ার নামে ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

 

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর উপজেলার কাশিপুর গ্রামের স্কুলশিক্ষক তুহিন আক্তার কাঁকন চাকরি দেয়ার নামে এক তরুণের নিকট থেকে ৫ লাখ হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। চাকরি না হলে এক সপ্তাহের মধ্যে এ টাকা ফেরত দেয়ার কথা বলে জমি বিক্রি করিয়ে আলমের নিকট থেকে টাকা নিলেও গত প্রায় ৫ বছরে চাকরি এবং টাকা কোনোটিই দেয়নি কাঁকন। টাকা ফেরত পেতে গত ৫ বছর ধরে তিনি আলমের পিতা ও ভাইসহ সমাজপতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ব্যর্থ হয়ে এখন দিশেহারা বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

কাশিপুর গ্রামের মৃত আওলাদ হোসেনের ছেলে আলম হোসেনের অভিযোগ, একই গ্রামের সিদ্দিকুর রহমান মাস্টারের ছেলে স্কুলশিক্ষক তুহিন আক্তার কাঁকন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে অফিস সহকারী পদে চাকরি দেয়ার নামে তার নিকট থেকে ২০১১ সালের ১৪ ডিসেম্বর ৫ লাখ টাকা নেন। এ টাকা তিনি জমি বিক্রি করে কাঁকনের পিতা সিদ্দিকুর রহমান ও ভাই স্কুলশিক্ষক শামীম হোসেনের উপস্থিতিতে কাঁকনের হাতে তুলে দেন। এ সময় তারা সকলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন চাকরি না হলে এক সপ্তাহের মধ্যে ৫ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে দেবো; কিন্তু গত প্রায় ৫ বছরেও আলমের চাকরি তারা দিতে পারেনি। আবার টাকাও ফেরত না দিয়ে নানারকম টালবাহনা করছে। এ অবস্থায় টাকা ফেরত পেতে আলম কাঁকনসহ তার পিতা ও ভাইয়ের নিকট বছরের পর বছর ধরে ধরনা দিয়ে চলেছেন। টাকা আদায়ে শেষ পর্যন্ত গ্রামের ইউপি সদস্যসহ মাতবরদের দ্বারস্থ হলেও তারাও দেখছি বলে কোনো পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে। এ অবস্থায় প্রভাবশালী কাঁকনের নিকট হতে টাকা আদায়ে সহযোগিতা চেয়েছেন আলম হোসেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *