জীবননগরে প্রেমিকের টানে ঘর ছেড়েছেন এক নববধূ

 

জীবননগর ব্যুরো: প্রেমিকের টানে ঘর ছেড়েছেন এক নববধূ। হাতের মেহেদীর রঙ শুকাকে না শুকাতে পুরানো প্রেমিকের টানে ঘর ছেড়েছেন নববিবাহিতা স্ত্রী পপি খাতুন। গত সোমবার দুপুরে স্বামী অনুাস্থতির সুযোগে সাথে আসা দাদিকে নামাজের বিছানায় রেখে সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে লাপাত্ত হয়ে পড়েন। নববিবাহিত স্ত্রীর রহস্য জনক উধাও হয়ে যাওয়ার খবর এলাকায় শোরগোল হয়ে পড়লে বাড়িটি ঘিরে উৎসুক নারী-পুরুষের ভিড় করতে দেখা গেছে। পরিবারের সদস্যরা খোঁজখুজি করে ওই নববিবাহিতা স্ত্রীকে উদ্ধার করতে পারেনি। নববধূর বিরুদ্ধে নগদ টাকা ও সোনার গয়না নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার দাবি করা হলে স্বামীপক্ষ থেকে তাতক্ষণাতভাবে এর সত্যতা মেলেনি।

এলাকাবাসীসূত্রে জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া পূর্ববাজারের কামাল ডাক্তার খানার মালিক পল্লি চিকিতসক কাজি কামাল হোসেন (৩০) গত শুক্রবার ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ঘোষপাড়ার জামাল হোসেনের সুন্দরী মেয়ে পপি খাতুনকে (২১) আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে করেন। বিয়ে পর্ব শেষে প্রথা অনুয়ায়ী কনের সাথে বরের বাড়িতে আসে দাদি। চলছিলো নববিবাহিতা স্ত্রীকে নিয়ে স্বামীর ফিরেনিতে যাওয়ার প্রস্তুতি। গত সোমবার দুপুরে স্বামী পেশাগত কাজে ডাক্তার খানায় রোগীদের চিকিৎসা সেবায় ব্যস্ত, সাথে আসা দাদি নামাজের বিছানায়, বাড়িতে তেমন কেউ নেয় এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে নববিবাহিতা স্ত্রী লাপাত্ত হয়ে পড়ে। প্রকাশ্যে দিবালোকে উধাও হয়ে যাওয়ার খবর এলাকায় চাওর হয়ে পড়লে বাড়িটি ঘিরে উৎসুক নারী-পুরুষের ভিড় বাড়তে থাকে। শুরু হয় চারিদিকে অনুসন্ধান ও খোঁজাখুজি। শেষ পর্যন্ত তাকে উদ্ধার করতে পারেনি স্বামী পক্ষ।

সূত্র জানায়, পপি খাতুন পুরানো প্রেমিকের হাত ধরে যশোর এলাকায় আত্মগোপন করেছেন। খবর পেয়ে কনের পিতা পক্ষ তাকে উদ্ধার করে হেফাজতে নিয়েছে। চলছে ঘটনাটি ধামাচাপা দিয়ে ম্যানেজ করার চেষ্টা।

উল্লেখ্য, কাজি কামাল হোসেন ইতঃপূর্বে দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা এলাকায় বিয়ে করে অজ্ঞাত কারণে প্রথম স্ত্রীকে তালাক প্রদান করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *