জীবননগরে জাকিরের কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ দু গ্রামের মানুষ

 

জীবননগর ব্যুরো: এক লম্পট চোরের কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে দু গ্রামের মানুষ। গত শুক্রবার এ চোর পার্শ্ববর্তী গ্রামে গরু চুরি করতে গিয়ে গৃহকর্তা সেজে ঘরের বারান্দায় ঘুমন্ত গৃহবধূর সাথে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করতে গিয়ে হাতেনাতে আটক হয়। পরে তাকে থানায় সোপর্দ করা হলেও গ্রামের একটি মহল তাকে থানা থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, নতুনপাড়া গ্রামের মংলা মণ্ডলের ছেলে জাকির পেশায় একজন চোর। তার টার্গেট অসহায় ও দরিদ্র মানুষ। গভীর রাতে সে চুরির পাশাপাশি ঘরের বারান্দায় ঘুমন্ত গৃহবধূদের শ্লীলতাহানি করে থাকে। এ অনৈতিক কাজ করতে গিয়ে কোনো কোনো সময় সে হাতেনাতে আটকও হয়। গত শুক্রবার পার্শ্ববর্তী সদরপাড়া গ্রামে গরু চুরি করতে আসে। এ সময় সে ঘরের বারান্দায় জনৈক কৃষকের গৃহকর্ত্রীর সাথে স্বামী সেজে দৈহিক সর্ম্পক স্থাপন করতে গেলে লম্পট চোর জাকির হাতেনাতে ধরা পড়ে। গৃহবধূর চিৎকারে গৃহকর্তাসহ প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাকে আটক করে থানায় দেয়। এ সময় দেখা যায় গোয়ালঘর থেকে গরু চুরি করে বাইরে বের করে রেখেছে লম্পট চোর জাকির। লম্পট চোর জাকিরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ দু গ্রামের মানুষ তার হাত থেকে রেহাই পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *