জীবননগরে এনএসআই’র অভিযান : অবৈধ মজুদ সার জব্দ : ভ্রাম্যমাণ আদালতে সার ব্যবসায়ীর জরিমানা

জীবননগর ব্যুরো: জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই জীবননগরে অভিযান পরিচালনা করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জীবননগর শহরের দত্তনগর সড়কে অবস্থিত শান্তনা এন্টারপ্রাইজে অভিযান চালিয়ে ২৪০ বস্তা ইউরিয়া সার জব্দ করা হয়। অবৈধভাবে সার মজুদ রাখার দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত সারব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ প্রদান করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ দণ্ডাদেশ দেয়া হয়।

জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার এনএসআই চুয়াডাঙ্গার উপপরিচালক আবু জাফর ইকবালের নির্দেশে ফিল্ড সুপারভাইজার আলিফউদ্দিন ও ওয়াচার সজিবুল হাসান গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে জীবননগর শহরের দত্তনগর সড়কে অবস্থিত শান্তনা এন্টারপ্রাইজে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় আবুল কালাম আজাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অবৈধভাবে বিপুল পরিমাণ ইউরিয়া সার মজুদ থাকতে দেখা যায়। ব্যবসায়ী আজাদ এ সারের কোনো বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় এনএসআই তা জব্দ করে সারসহ ব্যবসায়ী আজাদকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজেদুর রহমান অবৈধভাবে সার মজুদ রাখার দায়ে আবুল কালাম আজাদকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন। একই সাথে জব্দকৃত সার বিসিআইসি সারব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জীবননগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমানের জিম্মায় রাখার আদেশ দেন। ব্যবসায়ী আজাদ তাৎক্ষণিকভাবে জরিমানার টাকা পরিশোধ করে সাজা থেকে মুক্ত হন।

Leave a comment

Your email address will not be published.