জীবননগরের পথসভায় সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখেতে সহযোগিতা করুন

 

জীবননগর ব্যুরো: আগামী নির্বাচনে আবারও নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়ী করার আহ্বান জানিয়ে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর বলেছেন, দেশের উন্নয়ন, দেশকে এগিয়ে নেয়া ও দেশের কলঙ্কমোচনের জন্য আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করুন। আওয়ামী লীগকে আবার দেশ সেবার সুযোগ দিন। তিনি গতকাল শনিবার বেলা ১০টার দিকে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৭ কোটি ৯০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণের সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এক পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. মো. হাসানুজ্জামান নূপুরের সভাপতিত্বে ও প্রভাষক মো. নাসির উদ্দীনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত পথসভায় তিনি আরও বলেন, বিএনপি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিরোধীতা করে হরতাল ডেকে গাড়ি থেকে নামিয়ে গায়ে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করছে। কোনো মুসলমান কী মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করতে পারে? অথচ সেই বিএনপি-জামায়াত মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করে। নির্বিচারে নির্যাতন করে। এছাড়া বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে লুটপাট, দুর্নীতি করেছে। বিদেশে অর্থ পাচার করেছে।

সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর তার সরকারের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে আবারও নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান। এ সময় তিনি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার, খাদ্যে স্বনির্ভরতা অর্জন, শিক্ষাক্ষেত্রে সাফল্য, কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা, দারিদ্র্য দুরীকরণ, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা এবং সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা উল্লেখ করেন। তিনি আরো বলেন, দেশ স্বাধীনের ৪২ বছরের মধ্যে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থেকেছে মাত্র ১৩ বছর এবং অন্যান্য দল ক্ষমতায় থেকেছে ২৯ বছর। অন্যান্য দল ২৯ বছরে দেশের যে উন্নয়ন করতে পারেনি সেখানে আওয়ামী লীগ সরকার মাত্র ১৩ বছর ক্ষমতায় থেকে তার থেকে শতভাগ উন্নয়ন বেশি করেছে। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গ্রামীণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করেছিলো। কিন্তু বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর তা বন্ধ করে দিয়েছে। কারণ তারা জনগণের সরকার নয়। তারা ক্ষমতায় যায় কেবলই দেশের সম্পদ লুটেপুটে খাওয়ার জন্য। তিনি আরো বলেন, এ সরকারের আমলে ৫ হাজার ৫২৮টি নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ ও সংসদসহ প্রত্যেকটি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। একটি নির্বাচন নিয়েও কেউ কোনো কথা বলতে পারেনি। বাংলাদেশের মানুষ ভোট দিয়েছে, যাকে খুশি তাকে দিয়েছে। আমরা সে ব্যবস্থাই রাখতে চাই যে, বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনভাবে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দেবে। যাকে তাদের পছন্দ তাকেই ক্ষমতায় আনবে। এভাবে জনগণের ক্ষমতা আমরা নিশ্চিত করব।

পথসভায় আরো বক্তব্য রাখেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. গোলাম মোর্তূজা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন মিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান মো. হাফিজুর রহমান, মদনা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জাকারিয়া আলম, প্রেসক্লাব সভাপতি মো. আনারুল কবির, গ্রাম্য চিকিৎসক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. আবু জাফর প্রমুখ। এরপর তিনি ১ কোটি ২৩ লাখ টাকা ব্যয়ে জীবননগর পাইলট বহুমুখি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতল একাডেমিক ভবন ও ১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা ব্যয়ে উথলী মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতল একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন করেন।                                                                       

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *