জীবননগরের উথলী ইক্ষু ক্রয়কেন্দ্রে বিনা পুর্জিতে আখ বিক্রি করতে নিষেধ করায় কৃষককে বেধড়ক মারপিট

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর উপজেলার উথলী ‌ইক্ষু ক্রয়কেন্দ্রে বিনা পুঁজিতে আখ বিক্রি করতে নিষেধ করায় এক কৃষককে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। উপস্থিত জনতা মুমূর্ষু অবস্থায় ওই কৃষককে উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল রোববার দুপুরে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী দায়ী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

জানা গেছে, গত শুক্রবার জীবননগর উপজেলার উথলী ঈক্ষু ক্রয়কেন্দ্রে আখচাষিদের নিয়ে মতবিনিময়সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়, পুঁজি ছাড়া আখ কেনা যাবে না এবং বিষয়টি মাইকিং করে এলাকার আখচাষিদেরকে জানিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু গতকাল রোববার দুপুরে উথলী গ্রামের কালু মণ্ডলের ছেলে জামাত আলী পুঁজি ছাড়াই আখ বিক্রি করতে যায়। কর্তৃপক্ষ আখ ক্রয় করতে অস্বীকৃতি জানায়। এ সময় জামাত আলীর লোকজন হিসেবে সেনেরহুদা গ্রামের আবু জাফরের ছেলে আলমগীর হোসেনসহ তার ৬-৭ জন সহযোগী ইক্ষু ক্রয়কেন্দ্রে যায়। এরপর আলমগীর হোসেনের নির্দেশে তার সহযোগীরা কোনো কারণ ছাড়াই আখ বিক্রি করতে আসা সন্তোষপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে মনিকে (২৩) বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে সন্তোষপুর গ্রামের লোকজন ছুটে এলে আলমগীর হোসেনসহ তার সহযোগীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে রক্ষা পায়।

ঈক্ষু ক্রয়কেন্দ্রের অনেকে অভিযোগ করে বলেছেন, সেনেরহুদা গ্রামের আলমগীর হোসেনের ১ শতক পরিমাণও আখের চাষ নেই। তারপরও গত বৃহস্পতিবার অন্যের দু গাড়ি আখ উথলী ঈক্ষু কেন্দ্রে নিয়ে এসে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর করে কর্তৃপক্ষকে ক্রয় করতে বাধ্য করে। এরপর গতকাল রোববার টাকার বিনিময়ে ভাড়াটিয়া হিসেবে আবারও পুঁজি ছাড়া আখ বিক্রি করতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *