জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুরের বিভিন্ন স্থানে প্রস্তুতিসভা

 

জেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি

স্টাফ রিপোর্টার: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় ও ভাবগম্ভীরের সাথে পালনের লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসন বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ১৫ আগস্ট সূর্যোদ্বয়ের সাথে সাথে সরকারি, আধাসরকারি, স্বয়ত্তশাসিত, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। সকাল সাড়ে ৯টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শোক র‌্যালি বের করা হবে। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শ্রীমান্ত টাউনহলে গিয়ে শেষ হবে। পরে সেখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। সকাল ১০টায় শ্রীমান্ত টাউনহলে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হবে। সাড়ে ১০টায় একই স্থানে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন জাতীয় সংসদের হুইপ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি। সভাপতিত্ব করবেন জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ। জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আলোচনাসভা, র‌্যালি, জাতীয় দিবসের সাথে সংগতিপূর্ণ কবিতা পাঠ, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, হামদ-নাত প্রতিযোগিতা এবং মিলাদ মাহফিল ও মোনাজাত করা হবে। জাতীয় ও জেলা পর্যায়ের সাথে মিল রেখে উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে অনুষ্ঠান প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করা হয়েছে। বাদ যোহর সকল মসজিদে বিশেষ মোনাজাত। সুবিধাজনক সময়ে মন্দির, গীর্জা ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনা করা হবে।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গার কালিদাসপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালনের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার কালিদাসপুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি সভায় ইউনিয়নের প্রত্যেক ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে যথাযথ মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জালাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন। যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুজ্জামান শামিমের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা সাইদুর রহমান বকুল, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আশাদুল ইসলাম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা হাসিবুল ইসলাম, সমশের আলী, রবিউল ইসলাম, হাজি আমিরুল ইসলাম, আমিরুজ্জামান বাবু, তোফা মণ্ডল, নিজাম উদ্দিন, হাসিবুল মণ্ডল, ছানোয়ার হোসেন, হেলাল উদ্দিন, শহিদুল ইসলাম, আমির মিস্ত্রি, আব্দুল হান্নান, আমজেদ আলী,আফিল উদ্দিন, রিপন আলী, মাসুদ রানা, ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন, আয়ুব আলী, জমির মেম্বার, আলম মালিথা, রেজাউর রহমান, সেকেন, মুনছুর আলী প্রমুখ।

জামজামি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার জামজামি ইউনিয়ন আ.লীগের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালনে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউপি অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন জামজামি ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি দিদার আলী মালিতা। প্রধান অতিথি ছিলেন জামজামি ইউপি চেয়ারম্যান  নজরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সদস্য শ্রী তপন কুমার বিশ্বাষ ও জামজামি ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক রাহাব উদ্দিন।

জামজামি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ডা. আসাদুজ্জামান ডেভিডের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন জামজামি ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রতন শাহ, মিজানুর রহমান, ইজাল উদ্দিন, সিরাজ মণ্ডল রিপন শাহ, খায়রুল ইসলাম,  হামেদ মণ্ডল,  শরিফ উদ্দিন লস্কর, গোলাপ মিস্ত্রি , হায়দার আলী, কুরবান আলী, নুর ইসলাম, মতিয়ার রহমান, সাইদুর রহমান,  সবুজ আলী,  মিলন আলী,  শহিদুল ইসলাম, লাল্টু রহমান, লিয়াকত হোসেন প্রমুখ।

দামুড়হুদা/হাউলী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার হাউলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেলে হাউলী ইউপি চত্বরে হাউলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্মআহ্বায়ক নাহিদুল ইসলাম অনিকের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মনজু। উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা-আব্দুস সালাম, লাল্টু, আক্তার হোসেন, দামুড়হুদা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিশান তরফদার, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ইস্রাফিল, দর্শনা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বাকি বিল্লাহ, দামুড়হুদা কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এমএ করিম, ছাত্রলীগ নেতা হাকিম, জাহিদ, সালাম, তামিম, আরিফুল, সাগর, শামিম, শাকিল, খোকন, রাব্বি প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সাজিদ হাসান হিরক।

এদিকে দামুড়হুদা সদর ও ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, কৃষক লীগ এবং যুবলীগের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় দামুড়হুদা বাজারস্থ সোনালী ব্যাংকের সামনে সাবেক ইউপি সদস্য যুবলীগ নেতা আবুল হাশেমের সভাপতিত্বে  প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক আব্দুল জব্বার, কৃষকলীগ নেতা আফজালুর রহমান বুলু, জসিম উদ্দীন, আব্দুল কুদ্দুস, আবুল হাশেম, আব্দুর রাজ্জাক, খোরশেদ মণ্ডল, নজরুল ইসলাম, আবুবকর, শাহিন, নূর হোসেন, আকতার, আলম, বিল্লাল মালিথা প্রমুখ। সভায় আগামী ১৫ আগস্ট বেলা ১১টায় শোক র‌্যালি, র‌্যালি শেষে দামুড়হুদা পাইলট হাইস্কুল মাঠে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল এবং দোয়া মাহফিল শেষে কাঙালি ভোজের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ইউনিয়ন আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের উদ্যোগে শোক দিবসকে যথাযোগ্য মর্যাদায় উৎযাপনের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেল ৪টায় আরামডাঙ্গা বটতলা অস্থায়ী কার্যালয়ে আ.লীগ নেতা মজিবর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ১ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আ.লীগ নেতা শিক্ষক আলাল উদ্দিন, শহিদুল ইসলাম, গোলাম রসুল, আব্দুল হাকিম, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্মআহ্বায়ক সাজেদুল বিশ্বাস মিঠু, যুবলীগ নেতা তুহিন আক্তার, আলম, জহির, সাখোয়াত, রানা, শহিদুল, ছাত্রলীগ নেতা ওমর ফারুক প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সাজেদুল বিশ্বাস মিঠু। অনুষ্ঠানের শুরুতে ইউনিয়ন আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শওকত আলী তরফদারের মৃত্যুতে ইউনিয়ন আ.লীগ শোক প্রকাশ করে।

মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী পালন উপলক্ষে প্রস্ততিমূলকসভা করেছে মুজিবনগর উপজেলার দরিয়াপুর ইউপি আওয়ামী লীগ। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় দারিয়াপুর ইউপি আওয়ামী লীগ অফিসে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাকিম হক খোকন কমান্ডারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এএসএম মাহাবুবুল আলম রবি, ইউপি সদস্য গোলাম নবী, আওলাদ হোসেন প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দারিয়াপুর ইউপি আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড সভাপতি ও সম্পাদকবৃন্দ।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস মুছে দেয়ার ষড়যন্ত্র হয়েছিলো। তাই শোক দিবস পালনের মধ্যদিয়ে সেই ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। গতকাল শনিবার দুপুরে গাংনী উপজেলা মিলনায়তনে শোক দিবসের প্রস্তুতি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি ওই আহ্বান জানান।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর ডাকেই স্বাধীনতা যুদ্ধে আমিসহ অসংখ্য মুক্তিকামী মানুষ ঝাপিয়ে পড়েছিলেন। শেখ মুজিবুর রহমানের বলিষ্ট নেতৃত্বেই পাকিস্তানী হায়েনাদের হাত থেকে দেশ রক্ষা পায়। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়েও অনেক কঠিন পথ পাড়ি দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। দেশ ও দেশের মানুষকে নিয়ে তিনি অনেক স্বপ্ন দেখতেন। কিন্তু তা পুরনের আগেই তাকে হত্যা করে এক কালো ইতিহাস রচনা করে দেশবিরোধীরা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নারীনেত্রী নুরজাহান বেগম। উপজেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক শফি কামাল পলাশের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মুন্তাজ আলী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল আলম, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা মমতাজ কাকলী, জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান ও সাহারবাটি ইউপি আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ মোর্শেদ অতুল, মটমুড়া ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল আহম্মেদ, কাথুলী ইউপি চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান রানা, সাহারবাটি ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক, রাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সাকলায়েন ছেপু, জেলা পরিষদ সদস্য আয়ুব আলী, তোফাজ্জেল হোসেন ও গুলশানআরা, গাংনী উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাহানা ইয়াছমিন, উপজেলা যুব লীগ যুগ্ম সম্পাদক আল ফারুক, ছাত্রলীগ নেতা সাইফুজ্জামান সিপু ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ নেতা জিয়াউল হক জিয়াসহ নেতৃবৃন্দ। আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনে কর্মসূচি ঘোষণা করেন এমপি।

Leave a comment

Your email address will not be published.